BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২১ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিহার সীমান্তে ফের উত্তেজনা, সন্তান-সহ ভারতীয় যুবতীকে পণবন্দি করল নেপালের পুলিশ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 25, 2020 1:59 pm|    Updated: July 25, 2020 2:02 pm

Nepal Police again fires in border area, holding woman and child hostage

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেপালের পুলিশ কর্মীরা সন্তান-সহ এক ভারতীয় যুবতীকে পণবন্দি করায় প্রবল উত্তেজনা ছড়াল বিহার সীমান্তে। শুধু তাই নয়, এই নিয়ে বচসার সময় নেপালের পুলিশ গুলিও চালায় বলে জানা গিয়েছে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের পূর্ব চম্পারণ (​​East Champaran) জেলার গোধাশান থানার অন্তর্গত খারসালওয়া এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার খারসালওয়া (Kharsalwa) এলাকার বাসিন্দা ওই যুবতী সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে ভারত-নেপাল সীমান্তের কাছাকাছি জায়গায় ঘাস কাটছিলেন। আচমকা সেখানে হাজির হয় নেপাল পুলিশের কিছু কর্মী। ওই যুবতীকে ঘাস কাটতে বারণ করে। যুবতীটি তাদের কথার প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, তিনি ভারতীয় ভূখণ্ডের মধ্যেই রয়েছেন। এই কথা শুনেই ওই পুলিশকর্মীরা তাঁকে বেধড়ক মারধর করে। তারপর সন্তান-সহ তাঁকে নেপালের সীমান্তের মধ্যে থাকা পুলিশ পোস্ট তুলে নিয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: যুদ্ধে অপরাজেয় হবে ভারত, এবার নৌসেনার সঙ্গী খোদ ‘সমুদ্রের দেবতা’ ]

এদিকে এই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই বিহারের খারসালওয়া এলাকার মানুষ সীমান্তের কাছে গিয়ে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। শুরু হয় তুমুল গন্ডগোল। পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠছে দেখে নেপালের পুলিশকর্মীরা গুলিও চালায় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে পূর্ব চম্পারণের পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে ও সন্তান-সহ যুবতীকে উদ্ধার করে।

এপ্রসঙ্গে পূর্ব চম্পারণের পুলিশ সুপার নবীনচন্দ্র ঝা বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবতী ও তাঁর সন্তানকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে এলাকায় প্রচণ্ড উত্তেজনা রয়েছে। কেন ওই মহিলাকে পণবন্দি করা হয়েছিল তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: অবশেষে গান্ধীদের কাছে ‘সম্মান’ পেলেন নরসিমা রাও, প্রশংসায় পঞ্চমুখ প্রণব-মনমোহনও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে