BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মন্ত্রিসভায় ঠাঁই দেননি মোদি, বিহারে ফিরেই ‘বদলা’ নিলেন নীতীশ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 2, 2019 5:06 pm|    Updated: June 2, 2019 5:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারে নীতীশ-মোদির জোট বিরোধী আরজেডি-কংগ্রেসের মহাজোটকে কার্যত ধূলিসাৎ করে দিয়েছে। ৪০ আসনের মধ্যে এনডিএ শিবিরের দখলে গিয়েছে ৩৯টি আসন। কিন্তু, এ হেন সাফল্যের পরও শান্তি নেই এনডিএ শিবিরে। মন্ত্রিত্ব ভাগাভাগি নিয়ে জেডিইউ-বিজেপির কোন্দল চরমে। দাবি পূরণ না হওয়ায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় শামিল না হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংযুক্ত জনতা দল। নীতীশের দাবি ছিল, তাঁর দল থেকে অন্তত ২ জনকে পূর্ণ মন্ত্রী করা হোক। কিন্তু, বিজেপি তাতে রাজি হয়নি। গেরুয়া শিবির জেডিইউকে মাত্র একটি ক্যাবিনেট মন্ত্রিত্ব দিতে চেয়েছিল। আর এই কোন্দলের জেরে মন্ত্রিসভায় যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন নীতীশ। তখন, এ নিয়ে খুব বেশি জলঘোলা না হলেও বিহারে ফিরেই মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার কার্যত বদলা নিলেন নরেন্দ্র মোদির কাছে।

[আরও পড়ুন: বিজেপি বিধায়কের স্কুলে বন্দুক চালানোর প্রশিক্ষণ বজরং দলের, পুলিশের দ্বারস্থ স্থানীয়রা]

রবিবারই বিহারে মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ করা হল। বেশ কিছুদিন ধরেই বিজেপি এবং জেডিইউয়ের মধ্যে আলোচনা চলছিল এই সম্প্রসারণ নিয়ে। কোন দল কটি মন্ত্রিত্ব পাবে তা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে আলোচনা চলছিল। কিন্তু, কেন্দ্রে বঞ্চনার পরই নীতীশ কার্যত একপেশেভাবে মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ করলেন। নতুন আটজনকে মন্ত্রিসভায় ঠাঁই দিলেন। তাঁরা প্রত্যেকেই জেডিইউ-এর সদস্য। অন্যদিকে, বিজেপির জন্য মাত্র একটি আসন ফাঁকা রাখা হয়েছে। যা নিয়ে বেশ অসন্তুষ্ট গেরুয়া শিবির। বিহারের বিজেপি নেতা তথা উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদি জানিয়েছেন, বিজেপির জন্য মন্ত্রিসভায় একটি আসন ছাড়া হয়েছে। যা পরে পূরণ করা হবে। অন্যদিকে, জেডিইউ-এর মুখপাত্র কে সি ত্যাগী জানিয়ে দিয়েছেন, “শুধু এবার নয়, ভবিষ্যতেও আমরা মোদি মন্ত্রিসভায় কোনওদিন যোগ দেব না।”

[আরও পড়ুন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কর্তাদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক, প্রথম দিনেই ‘মিশন কাশ্মীর’ অমিত শাহর]

শুধু জেডিইউ নয়, শিব সেনাও মন্ত্রী নির্বাচনের ক্ষেত্রে বিজেপির ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। শিব সেনার দাবি ছিল, হয় রেল কিংবা জাহাজ মন্ত্রকের মতো বড় কোনও মন্ত্রিত্ব। এবং সেই সঙ্গে আরও অন্তত ২টি মন্ত্রিত্ব। জোটসঙ্গীর সেকথা না মেনে বিজেপি শিব সেনাকে একটি মাত্র পূর্ণ মন্ত্রিত্ব দিয়েছে, তাও ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। এর ফলে জোটসঙ্গীদের মধ্যে গুঞ্জন একক ক্ষমতায় ৩০০ আসন দখল করে ফেলায় জোটসঙ্গীদের আর গুরুত্ব দিতে চাইছে না বিজেপি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement