BREAKING NEWS

২৮ চৈত্র  ১৪২৭  রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জর্জরিত দেশ, হোলির জমায়েতে ‘না’ কেন্দ্রের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 27, 2021 9:22 am|    Updated: March 27, 2021 1:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: দেশের করোনা (CoronaVirus) পরিস্থিতি ভয়াবহ। প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে রঙের উৎসব হোলি তথা দোল এবং আগামিদিনে অন্যান্য উৎসবে ভিড় নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দিল কেন্দ্র। সংক্রমণ ও করোনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে বলে উল্লেখ করেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লা দেশের সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যসচিবদের চিঠি লিখে সতর্ক করেছেন। একগুচ্ছ নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।

চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘আগামী দিনে হোলি (Holi), শবে বরাত, ফসল রোপণ, ইস্টার, ইদ-উল-ফিতরের মতো নানা উৎসব রয়েছে। রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে এই সমস্ত উৎসবের সময়ে ভিড় নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে হবে। উৎসবের সময়ে মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্বের মতো করোনা বিধিগুলি যাতে কড়াভাবে পালন করা হয়, তা নিশ্চিত করতে হবে।’ জেলা এবং পুলিশ প্রশাসনের কাছে নজর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার কথাও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব।

[আরও পড়ুন: শালবনিতে আক্রান্ত সিপিএম প্রার্থী সুশান্ত ঘোষ, গাড়ি লক্ষ্য করে ইট ও জুতো ছোঁড়ার অভিযোগ]

দোল খেলা নিয়ে যেমন নির্দেশিকা জারি হয়েছে, তেমনই রাজ্যের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলির সঙ্গে বৃহস্পতিবার দিনভর দফায় দফায় আলোচনা করেছে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর। শুক্রবার সকালে রাজ্যের সব সরকারি কোভিড হাসপাতালের সঙ্গে আলোচনা করেন রাজ্যের স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম-সহ স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডা. অজয় চক্রবর্তী। পরে বিকেলে বেসরকারি হাসপাতালগুলির থেকে সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়। বৈঠকে স্বাস্থ্যসচিব বলেন, আগামী সোমবারের মধ্যে সব কোভিড হাসপাতাল ও নার্সিংহোমকে কোভিড শয্যা বাড়াতে হবে। রাজ্যের সরকারি কোভিড হাসপাতালের প্রিন্সিপাল ও এমএসভিপিদের সঙ্গে আলোচনায় স্বাস্থ্যসচিব অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা খতিয়ে দেখার যেমন নির্দেশ দেন, তেমনই আরও ডাক্তার, কর্মীদের কোভিড ওয়ার্ডে নিয়োগের নির্দেশ দেন। পরে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডা. অজয় চক্রবর্তী বলেন, “আপাতত চালু সরকারি কোভিড হাসপাতালের পরিকাঠামো একশো শতাংশ ফিরিয়ে আনতে বলা হয়েছে। প্রয়োজনে শয্যাসংখ্যা আরও বাড়বে। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সমস্ত তথ্য জমা দিতে বলা হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: ভোটের আগে স্বস্তি, মমতার নির্বাচনী এজেন্টকে নন্দীগ্রামে প্রবেশে অনুমতি সুপ্রিম কোর্টের]

বেসরকারি হাসপাতাল সংগঠনের সভাপতি রূপক বড়ুয়া সরকারের সঙ্গে আলোচনার পর জানিয়েছেন, “আমরা তৈরি। ক্রমশ বাড়ছে সংক্রমণ। তাই কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতাল ইতিমধ্যে কোভিড শয্যা বাড়িয়েছে। বাকিগুলিও সোমবার থেকে পরিষেবা শুরু করবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement