BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উদ্ধবের অযোধ্যায় আসা কেউ আটকাতে পারবে না, VHP’কে হুমকি রাম মন্দির কর্তৃপক্ষের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 14, 2020 3:06 pm|    Updated: September 14, 2020 3:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ও বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের দ্বৈরথকে কেন্দ্র করে যেন দু’ভাগ হয়ে গিয়েছে ভারতীয় হিন্দু সমাজ! কিছুদিন আগে যে শিব সেনা প্রধানকে অযোধ্যায় স্বাগত নয় বলে ঘোষণা করেছিল বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও সাধুদের সর্বোচ্চ সংগঠন অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ (ABAP)। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী রামের জন্মভূমিতে এলে তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছিল। সোমবার তার তীব্র সমালোচনা করলেন রাম মন্দির তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক চম্পত রাই। কারও ক্ষমতা থাকলে উদ্ধবকে আটকে দেখাক বলেও হুমকি দিলেন।

সোমবার শিব সেনাকে প্রধানকে রাম জন্মভূমিতে স্বাগত জানিয়ে চম্পত রাই বলেন, ‘মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকর (Uddhav Thackeray) -এর অযোধ্যায় আসা কেউ আটকাতে পারবে না। কার মা এত দুধ খাইয়েছে যে সে উদ্ধবকে আটকাতে পারে?’

[আরও পড়ুন: মোদি-মমতা থেকে শচীন-বোবদে, ১০ হাজার ভারতীয়র উপর নজর রাখছে চিনা সংস্থা! ]

গত কয়েকদিন ধরেই কঙ্গনা রানাউতের সঙ্গে মহারাষ্ট্রের শাসকদল শিব সেনা ও মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের বিবাদের ঘটনা সংবাদের শিরোনামে রয়েছে। সম্প্রতি বৃহন্মুম্বই পুরসভার তরফে বলিউড অভিনেত্রীর অফিস অবৈধ নির্মাণের অভিযোগে ভেঙে দেওয়া হয়। তারপরই দেশজুড়ে শুরু হয় বিতর্ক। কঙ্গনার পক্ষে দাঁড়িয়ে শিব সেনা ও উদ্ধব ঠাকরের তীব্র সমালোচনা করে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (Vishwa Hindu Parishad), অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ ও অযোধ্যার বিভিন্ন সাধুরা।

হনুমানগড়ি মন্দিরের পুরোহিত মহন্ত রাজু দাস বলেন, ‘উদ্ধব ঠাকরে (Uddhav Thackeray) ও শিব সেনাকে অযোধ্যায় আর স্বাগত জানানো হবে না। উলটে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী এখানে এলে তাঁকে অযোধ্যার সাধুদের তীব্র বিরোধিতার মুখে পড়তে হবে। মহারাষ্ট্র সরকার ওই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে কোনও সময় নষ্ট না করেই ব্যবস্থা নিয়েছে। কিন্তু, সেই সরকারই এখনও পর্যন্ত পালঘরে নৃশংসভাবে মৃত্যু হওয়া দুই সাধুর খুনিদের ধরতে পারেনি।’

বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (VHP) -এর আঞ্চলিক মুখপাত্র শরদ শর্মা বলেন, ‘ওই অভিনেত্রী জাতীয়তাবাদী শক্তিগুলিকে সমর্থন করেন ও মুম্বইয়ের মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। তাই অন্যায়ভাবে শিব সেনা ও মহারাষ্ট্র সরকার লাগাতার তাঁকে হেনস্তা করার চেষ্টা করছে। এটা কখনও মেনে নেওয়া যায় না।’

[আরও পড়ুন: লেজার গানে ছাই হয়ে যাবে দুশমন, ‘স্টার ওয়ার্স’-এর আদলে অস্ত্র তৈরির প্রস্তুতি ভারতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement