BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শহিদ হেমন্ত কারকারেকে নিয়ে মন্তব্য, বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞাকে নোটিস কমিশনের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 20, 2019 4:34 pm|    Updated: April 20, 2019 4:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শহিদ হেমন্ত কারকারেকে নিয়ে মন্তব্য করার জেরে এবার বিপাকে ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা। বিজেপি প্রার্থীকে নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। জেলা নির্বাচনী আধিকারিক এবং ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টরের তরফে এই নোটিস পাঠানো হয়েছে। সাধ্বী প্রজ্ঞাকে তাঁর বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে এই নোটিসে। একদিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে সাধ্বীকে।

[আরও পড়ুন: ‘আমার সঙ্গে জঙ্গিদের মতো ব্যবহার করা হত’, কান্নায় ভেঙে পড়লেন আজম খান]

বৃহস্পতিবার ভোপালে বিজেপি প্রার্থী বলেছিলেন, “লকআপে আমার উপর দিনের পর দিন অত্যাচার করত হেমন্ত কারকারে। সেই সময় হেমন্ত কারকারেকে অভিশাপ দিয়েছিলাম। বলেছিলাম, ভয়ানক মৃত্যু হবে তাঁর। সেই অভিশাপ ফলে গিয়েছে।” সাধ্বীর এই মন্তব্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই তোলপাড় পড়ে যায়। শুধু ভোপাল নয়, রাজধানী দিল্লিতে, গোটা দেশে। বিষয়টি নিয়ে আসরে নেমে পড়ে বিরোধী দলগুলি। প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি করে কংগ্রেস। তীব্র নিন্দা করে আইপিএসদের সংগঠন। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্তের নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। পরে অবশ্য বিরোধীদের সমালোচনার মুখে নিজের বয়ান বদল করেন সাধ্বী। বিবৃতি দিয়ে বলতে বাধ্য হন, ‘কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আঘাত দিতে চাইনি। কেউ যদি আঘাত পেয়ে থাকেন তাহলে ক্ষমা চাইছি। আমি এভাবে বলিনি। আমার মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।’ এমনকী, প্রজ্ঞা উলটে প্রয়াত কারকারেকে ‘শহিদ’ বলেও মন্তব্য করেন।

[আরও পড়ুন: শহিদ হেমন্ত কারকারেকে নিয়ে মন্তব্য, চাপে পড়ে ক্ষমা চাইলেন সাধ্বী প্রজ্ঞা]

কিন্তু তাতেও খুব একটা লাভ হয়নি। বিরোধীদের দাবি ছিল, এই মন্তব্য করে শহিদকে অসম্মান করার পাশাপাশি নির্বাচনী আচরণবিধিও ভঙ্গ করেছেন বিজেপি প্রার্থী। বিরোধীদের সেই দাবি খানিকটা মেনে নিয়েই সাধ্বীকে নোটিস পাঠাল কমিশন। উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই সাধ্বীকে ভোটে লড়তে না দেওয়ার দাবিতে কমিশনে আরজি জানিয়েছেন মালেগাঁও হামলায় নিহতের পরিবারের এক সদস্য।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement