BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সম্বিত পাত্রের জন্যই জনপ্রিয় হয়েছে পুরী’, আজব দাবি ওড়িশার বিজেপি নেত্রীর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 17, 2020 5:21 pm|    Updated: November 17, 2020 5:25 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির সর্বভারতীয় মুখপাত্র সম্বিত পাত্র পুরী থেকে লোকসভা নির্বাচনে লড়াই করেছিলেন। শুধুমাত্র এই কারণেই জনপ্রিয় হয়েছে পুরী (Puri)। সম্প্রতি এই ধরনের আজব দাবি করে হাসির খোরাক হয়েছেন ওড়িশার এক বিজেপি নেত্রী। প্রাচীন এই মন্দির শহরকে নিয়ে এই ধরনের ভুলভাল মন্তব্যের ফলে তৈরি হয়েছে প্রবল বিতর্কও। পরিস্থিতি দেখেই ওই বিজেপি নেত্রীর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে বলে দাবি জানিয়েছে ওড়িশার রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। তবে ওই নেত্রীর বক্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়ার পর তাঁকে নিয়ে ব্যঙ্গবিদ্রূপ করছেন নেটিজেনরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার পুরী জেলার পিপলি এলাকায় আয়োজিত একটি কর্মীসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়েছিলেন ওড়িশা বিজেপির অন্যতম মুখপাত্র লেখাশ্রী সামান্তাসিংঘর (Lekhashree Samantasinghar)। সেখানে গিয়ে বিজেপি কর্মীদের তিনি বলেন, ‘আগে মানুষ মনে করত পুরী মনে হয় কলকাতাতে অবস্থিত। কিন্তু, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে সম্বিত পাত্র পুরী থেকে বিজেপির প্রার্থী হওয়ার পরেই সবাই এই শহরকে ওড়িশার অন্তর্গত বলে জানতে পেরেছেন।’

[আরও পড়ুন: নমাজের পর মসজিদ কমিটির সম্পাদককে বেধড়ক মারধর, উত্তেজনা কর্ণাটকে]

ওই বিজেপি নেত্রীর বক্তব্যের ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হতেই অসন্তোষ তৈরি হয়েছে ওড়িশার অনেক মানুষের মনে। হাতেগরম ইস্যু পেয়ে আসরে নেমে বিজেপির প্রবল সমালোচনা করতে শুরু করেছে কংগ্রেস-সহ অন্য বিরোধীরা। এপ্রসঙ্গে ওড়িশার কংগ্রেস নিরঞ্জন পট্টনায়েক বলেন, এতে বিজেপির আগ্রাসী মনোভাবের প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। এই ধরনের মন্তব্য করে তারা শুধু প্রভু জগন্নাথকেই অপমান করেনি, নিজেদের ভগবানের সমগ্রোত্রীয় হিসেবে প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছে।

যদিও ওই নেত্রীর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে ওড়িশার বিজেপি নেতৃ্ত্ব। উলটে তাদের দাবি, এই ধরনের কোনও মন্তব্যই ওই নেত্রী করেননি। তাঁর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: সন্ত্রাসের দিন ফেরাতে চাইছে গুপকার জোট! কাশ্মীরে ‘আন্তর্জাতিক’ ষড়যন্ত্রের অভিযোগ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement