১২ মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘আমাকেও শূর্পনখা বলেছিল মোদি’, ‘রাবণ’ বিতর্কের মাঝে পালটা দিলেন কংগ্রেস নেত্রী

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 30, 2022 5:17 pm|    Updated: November 30, 2022 5:19 pm

On Mallikarjun Kharge's Ravan jibe, now Renuka Chowdhury says, ‘Modi compared me to Surpanakha’ | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গতকাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Modi) ‘রাবণ’ বলে কটাক্ষ করেন কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে (Mallikarjun Kharge)। গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের (Gujarat Assembly Election) আগে কংগ্রেস (Congress) নেতার মন্তব্যে তুঙ্গে উঠছে বিতর্ক। এর মধ্যেই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কংগ্রেস সাংসদ রেনুকা চৌধুরী (Renuka Chowdhury) দাবি করলেন, একবার সংসদে অধিবেশন চলাকালীন তাঁকে ‘শূর্পনখা’ সম্বোধন করেছিলেন মোদি। ওই ঘটনায় অপমানিত হন তিনি। রেনুকার প্রশ্ন, মিডিয়া তখন সরব হয়নি কেন? কোথায় ছিল তাঁরা?

গতকাল আহমেদাবাদের বেহরামপুরার জনসভায় খাড়গেকে বলতে শোনা গিয়েছে, ”আমরা আপনার (মোদি) মুখটা পুরসভার ভোটে দেখছি, বিধানসভার নির্বাচনে দেখছি আবার সাংসদ নির্বাচনেও দেখছি। আপনার কি রাবণের মতো ১০০টা মাথা?” পরে বিশদে বিষয়টি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে খাড়গে বলেন, ”মোদিজির নামেই তো ভোট চাওয়া হচ্ছে। সে পুরসভা নির্বাচন হোক বা বিধানসভা। কিন্তু ভোট তো প্রার্থীর নামেই চাওয়া উচিত। মোদি কি পুরসভার হয়ে কাজ করতে আসবেন? আপনার যখন দরকার পড়বে উনি এসে আপনাকে সাহায্য করবেন?”

[আরও পড়ুন: আরও বাড়বে চালের দাম! রপ্তানিতে কেন্দ্রের সবুজ সংকেতে বাড়ছে আশঙ্কা]

এদিকে মোদিকে এমন কটাক্ষের পালটা দেয় বিজেপি (BJP)। গেরুয়া শিবিরের আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য টুইটারে একটি পোস্ট করেন। তিনি লেখেন, “গুজরাট নির্বাচনের উত্তাপ সইতে না পেরে কংগ্রেস সভাপতি নিজের কথার উপর থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ‘রাবণ’ বলে বসেছেন! ‘মৃত্যুর সওদাগর’ থেকে ‘রাবণ’ কংগ্রেস গুজরাট ও তার ভূমিপুত্রকে অপমান করেই চলেছে।” এবার পালটা মোদির বিরুদ্ধেই অভিযোগ আনলেন কংগ্রেস সাংসদ রেনুকা চৌধুরী। রেনুকার টুইট, “সংসদে আমাকে শূর্পনখার সঙ্গে তুলনা করেন মোদি। তখন মিডিয়া কোথায় ছিল?”

[আরও পড়ুন: অমানবিক! স্কুলের মধ্যেই অন্তঃসত্ত্বা শিক্ষিকাকে চুলের মুঠি ধরে মার পড়ুয়াদের]

রেনুকার দাবিকে সমর্থন করেছেন কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ। তিনি রিটুইট করেন, “আমি সংসদের ওই অধিবেশনে উপস্থিত ছিলাম।” যদিও নেটিজেনদের একাংশ মানতে চায়নি রেনুকার দাবি। তাঁদের বক্তব্য, গোটাটা রেনুকার মন গড়া। আসলে কী ঘটেছিল? সংসদের পুরনো ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা গিয়েছে, নিজের ভাষণে মোদি আধার কার্ড সংক্রান্ত একটি দাবি করায় তুমুল হাসেন রেনুকা চৌধুরী। হাসি থামাতে বলেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু। সেই সময় মোদি বলেন, “বারণ করবেন না। রামায়ণ সিরিয়ালের পর এই ধরনের হাসি শোনা অভ্যাস হয়ে গিয়েছে।” আদতে শূর্পনখার হাসির সঙ্গে তাঁর হাসির তুলনা করেছিলেন মোদি। দাবি করেছেন রেনুকা চৌধুরী। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে