৩০ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ১৫ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৭৪টি শিশুর মৃত্যু নাড়িয়ে দেয় গোটা দেশকে। ওই ঘটনায় সম্প্রতি গোরক্ষপুরের বাবা রাঘব দাস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রাক্তন প্রিন্সিপাল এবং তাঁর স্ত্রীকে শ্রীঘরে পাঠিয়েছিল পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয়েছিল হাসপাতালের চিকিৎসক কাফিল খানকে। এবার গ্রেপ্তার করা হল হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহকারী সংস্থা ‘পুষ্পা সেলস’ মালিক মনীশ ভাণ্ডারিকে। রবিবার তাকে গ্রেপ্তার করে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

[গোরক্ষপুরে শিশুমৃত্যুর জের, দায়িত্ব ছাড়তে চান তিনটি মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ]

গত আগস্ট মাসে গোরক্ষপুরে মৃত্যু হয় ৭৪টি শিশুর। অভিযোগ উঠেছিল, অক্সিজেনের অভাবেই মৃত্যু হয়েছিল তাদের। গোটা ঘটনায় দেশজুড়ে তীব্র আলোড়ন পড়ে গিয়েছিল। সমালোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছিল বিভিন্ন মহলে। চাপে পড়ে দোষীদের ধরতে তদন্তে নামে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। মুখ্যসচিবের তত্ত্বাবধানে গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি। তদন্তে উঠে আসে হাসপাতালের চিকিৎসক কাফিল খান অক্সিজেন সিলিন্ডার চুরি করে তার চেম্বারে নিয়ে যেতেন। প্রাক্তন প্রিন্সিপালের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অসাধু এই কাজ করতেন। এরপরই গ্রেপ্তার করা হয় ওই কলেজের প্রাক্তন প্রিন্সিপাল, তাঁর স্ত্রী এবং কাফিল খানকে। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয় অ্যানাস্থেসিস্ট, ফার্মাসিস্ট, অ্যাকাউন্টেটের নামে। এই ঘটনায় মোট ন’জনের নামে এফআইআর দায়ের করা হয়েছিল।

[গোরক্ষপুরে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার ‘হিরো’ চিকিৎসক কাফিল খান]

মনীশ ভাণ্ডারি বাদে ওই তালিকায় নাম থাকা প্রত্যেককে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। ১৫ সেপ্টেম্বর দুর্নীতিদমন আদালত মনীশ ভাণ্ডারিকে অভিযুক্ত সাব্যস্ত করে এবং তার সমস্ত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয়। এরপরই এদিন তাকে আটক করে পুলিশ। গোরক্ষপুর পুলিশের সিনিয়র আধিকারিক অনিরুদ্ধ সিদ্ধার্থ পঙ্কজ এই প্রসঙ্গে জানান, ‘দেওরিয়া বাইপাস রোড থেকে গোরক্ষপুর পুলিশ পুষ্পা সেলসের মালিক মনীশ ভাণ্ডারিকে গ্রেপ্তার করেছে। পরে তাকে আদালতে তোলা হবে।’

[দেশভক্তিতে মোদির কাছে হার মানবেন গান্ধীও, কটাক্ষ কংগ্রেসের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং