১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে প্রথা মেনে ঘোষিত হল পদ্ম সম্মান প্রাপকদের তালিকা। এবং তাতে রয়েছে যথেষ্ট চমক। দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সম্মান ‘পদ্মবিভূষণ’ দেওয়া হচ্ছে সাতজনকে। তাঁদের মধ্যে তিনজনই প্রয়াত বিজেপি এবং শাসক NDA জোটের নেতানেত্রী। ‘মরণোত্তর পদ্মবিভূষণ’ পাচ্ছেন প্রথম নরেন্দ্র মোদি সরকারের অর্থমন্ত্রী প্রয়াত অরুণ জেটলি, বিদেশমন্ত্রী প্রয়াত সুষমা স্বরাজ এবং অটলবিহারী বাজপেয়ী সরকারে একাধিক মন্ত্রক সামলানো প্রয়াত জর্জ ফার্নান্ডেজ। মোদি সরকারের আমলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী তথা গোয়ার প্রাক্তন মুখ‌্যমন্ত্রী মনোহর পারিকর পেয়েছেন ‘মরণোত্তর পদ্মভূষণ’। আর এবারের পদ্ম তালিকায় বাংলা থেকে রয়েছেন পাঁচজন।

তাঁদের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ‘পদ্মভূষণ’ পাচ্ছেন বিখ‌্যাত শাস্ত্রীয় সংগীতশিল্পী পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী। এছাড়া চতুর্থ সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ‘পদ্মশ্রী’ প্রাপকদের তালিকায় নাম রয়েছে সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ কাজি মাসুম আখতার, চিকিৎসক সুশোভন বন্দ্যোপাধ্যায়, অরুণোদয় মণ্ডল এবং বিখ‌্যাত সেতারশিল্পী মণিলাল নাগের। পদ্মাবতী বন্দ্যোপাধ্যায় নামে আরও এক বাঙালি চিকিৎসক ‘পদ্মশ্রী’ পাচ্ছেন। তবে তিনি উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা।

[আরও পড়ুন: ‘মমতা-সহ বিরোধীরাই টুকরে টুকরে গ্যাং’, অবশেষে সন্ধান দিলেন অমিত শাহ]

 

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের ফলে যখন দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের একাংশের মনে অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে। তখন এ বছরের পদ্ম পুরস্কারের তালিকায় মুসলিম মুখের ছড়াছড়ি অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে! রাজস্থানের মুন্না মাস্টার, ফৈজাবাদের চাচা শরিফ, অনন্তনাগের জাভেদ আহমেদ তাক, গুজরাতের ব‌্যবসায়ী গফুর ভাই বিলকিয়া, কেরলের মুমতাজ আলি থেকে শুরু করে ক্রিকেটার জাহির খানের নাম রয়েছে ১৪১ জনের পদ্ম তালিকায়। বিজেপির বিরুদ্ধে মুসলিম বিদ্বেষী বলে প্রচার যখন তুঙ্গে তখন কেন্দ্রীয় সরকারের এই তালিকা অনেককেই বিস্মিত করেছে। বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ে ABVP-এর বিরোধিতার জেরে সংস্কৃত পড়াতে দেওয়া হয়নি রাজস্থানের ফিরোজ খানকে। কিন্তু, পদ্মশ্রীর তালিকায় নাম রয়েছে তাঁর বাবা মুন্না মাস্টারের। এই রাজ‌্য থেকেও তালিকায় স্থান পেয়েছেন কাজি মাসুম আখতার, যাঁকে টিভিতে সরব হতে দেখা যায় CAA’র বিরুদ্ধে। নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহর রাজ্যে ব‌্যবসায়ী গফুর ভাই বিলকিয়া জায়গা পেয়েছেন পদ্মশ্রীর তালিকায়। কাশ্মীরের মুজাফ্ফর হোসেন কিংবা বাংলাদেশের নাগরিক সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলি, এনামুল হক রয়েছেন পদ্ম তালিকায়। সমাজসেবী আবদুল জব্বর, ওস্তাদ আনোয়ার খাঁ, পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া আদনান সামি, উগ্রপন্থীদের হামলায় পঙ্গু জাভেদ আহমেদ তাক, মহারাষ্ট্রের সমাজসেবী এস এম কাদরি রয়েছেন তালিকায়।

[আরও পড়ুন: সাড়ে ৫ মাস গৃহবন্দি থাকার জেরে এ কী হাল ওমর আবদুল্লার! চমকে গেলেন মমতাও]

 

প্রতিবছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতীদের অবদানকে স্বীকৃতি দিয়ে এই সম্মান জানানো হয়। প্রতি বছর মার্চ কিংবা এপ্রিল নাগাদ রাষ্ট্রপতি ভবনে অনুষ্ঠান করে তাঁদের হাতে স্মারক ও মানপত্র তুলে দেওয়া হয়। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এই বছরের তালিকা প্রকাশ করে। রাষ্ট্রপতির সম্মতি তৈরি হওয়া এই তালিকায় এবার সাতজন ‘পদ্মবিভূষণ’, ১৬ জন ‘পদ্মভূষণ’ এবং ১১৮ জন ‘পদ্মশ্রী’ প্রাপকের নাম রয়েছে। তাঁদের মধ্যে ৩৪ জন মহিলা। অলিম্পিকে পদকজয়ী বক্সার এম সি মেরি কম ‘পদ্মবিভূষণ’ এবং ওলিম্পিকে পদকজয়ী ব‌্যাডমিন্টন তারকা পি ভি সিন্ধু ‘পদ্মভূষণ’ পাচ্ছেন। দেশের অন্যতম সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ‘পদ্মবিভূষণ’ পাচ্ছেন ‘কিরানা’ ঘরানার শাস্ত্রীয় সংগীত শিল্পী বেনারসের চন্নুলাল মিশ্র, মরিশাসের স‌্যর আনারউদ জগন্নাথ, উদুপির পেজাভারা অধোখাজা মঠের প্রয়াত অধ‌্যক্ষ শ্রী বিশ্বভেষতীর্থ স্বামীজি। বলিউড থেকে পদ্মশ্রী পাচ্ছেন পরিচালক করণ জোহর, একতা কাপুর ও অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত।

এই তালিকায় এটা স্পষ্ট হয়েছে, মোদি সরকার সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের নামী ও প্রথিতযশা ব‌্যক্তিত্বদের সঙ্গেই গুরুত্ব দিয়েছেন নানা ক্ষেত্রে নীরবে কাজ করে চলা ‘অপরিচিত’ মুখদেরও। যেমন চিকিৎসক এই রাজ্যের চিকিৎসক অরুণোদয় মণ্ডল। নিঃস্বার্থভাবে সুন্দরবনের প্রান্তিক মানুষের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। আর একজন নিবেদিতপ্রাণ চিকিৎসক বীরভূমের সুশোভন মণ্ডল, যিনি এক টাকার ডাক্তার বলে পরিচিত।

দেখুন ভিডিও:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং