BREAKING NEWS

২ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিজেপির সঙ্গে আঁতাঁত বিতর্কে এবার Facebook কর্তৃপক্ষকে জরুরি তলব সংসদীয় কমিটির

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 20, 2020 9:02 pm|    Updated: August 20, 2020 9:29 pm

Parliamentary Panel Summons Facebook Representatives on Sept 2 to Discuss Issue of 'Misuse' of Social Media Platforms

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ বিপাকে ফেসবুক। বিজেপির সঙ্গে আঁতাঁত বিতর্কে এবার Facebook কর্তৃপক্ষকে জরুরি তলব করল সংসদীয় কমিটি (Parliamentary Standing Committee)। সমন পাঠিয়ে আগামী ২ সেপ্টেম্বর ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে কমিটির সামনে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া ওই সমনে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের (Ministry of Electronics and Information Technology) আধিকারিকদেরও সেখানে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।বিগত কয়েকদিন ধরে ঘটে চলা বিতর্কের কারণেই সংসদীয় কমিটির এই সিদ্ধান্ত বলে খবর।

[আরও পড়ুন: মুসলিমদের ক্ষতি না করে ভারতে পরমাণু হামলা করব, আজব হুমকি পাকিস্তানের]

সম্প্রতি ফেসবুক ইন্ডিয়ার (Facebook India) কার্যকলাপ নিয়ে সরগরম হয় দিল্লির রাজনীতি। ভারতে কেন বিজেপিকে বিশেষ সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হচ্ছে?‌ কেন বিদ্বেষমূলক মন্তব্য ছড়াতে দেওয়া হল, তা নিয়ে সম্পূর্ণ তদন্তের দাবি জানিয়েছিল কংগ্রেস। সরব হয়েছিল বিরোধীরাও। এই প্রসঙ্গে কংগ্রেসের পক্ষ তিন পাতার এক চিঠি পাঠানো হয় মার্ক জুকারবার্গের সংস্থাকে। সেই চিঠিতে ফেসবুক ইন্ডিয়া পরিচালনার জন্য নতুন টিম নিয়োগের পরামর্শ দেন এআইসিসি সাধারণ সম্পাদক কে সি বেণুগোপাল। বলেন, “আমেরিকার সংবাদপত্রে ফেসবুকের ভারতীয় শাখার বিরুদ্ধে বিজেপির (BJP) প্রতি পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ উঠেছে। আমরা চাই সংস্থার প্রধান হিসেবে মার্ক জুকারবার্গ তার তদন্ত করুন।”

[আরও পড়ুন: অনলাইনে নয়া কানেকশনের আবেদনের গেরো! খাস কলকাতায় ছ’মাস বিদ্যুৎহীন পরিবার]

এরপরই এ নিয়ে ফেসবুকের ভারতীয় শাখার জবাব তলব করতে চান তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান শশী থারুর। তাঁকে এ বিষয়ে সমর্থন করেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রও। কিন্তু সংসদীয় কমিটির এই উদ্যোগ বানচাল করতে নামে শাসক শিবিরও। বিজেপি সাংসদ নিশিকান্ত দুবে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাকে (Om Birla) চিঠি দিয়ে বলেন, শশী থারুরকে (Shashi Tharoor) স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজ্যবর্ধন রাঠোর অভিযোগ করেন, শশী থারুর বিধিভঙ্গ করেছেন। শেষপর্যন্ত অবশ্য তাতে লাভ হল না। জবাব চেয়ে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে সমন পাঠাল সংসদীয় কমিটি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement