BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত চলবে না যাত্রীবাহী ট্রেন, ঘোষণা কেন্দ্রের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 11, 2020 6:48 pm|    Updated: August 11, 2020 6:48 pm

An Images

আপাতত দেশজুড়ে চলবে ২৩০টি স্পেশ্যাল ট্রেন।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা। মঙ্গলবার এমনটাই জানাল কেন্দ্র সরকার। ফলে উৎসবের মরশুমে রেল পরিষেবা স্বাভাবিক হওয়ার জল্পনায় আপাতত ইতি পড়েছে।

[আরও পড়ুন: পৈতৃক সম্পত্তির সমান উত্তরাধিকারী মেয়েরাও, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কাের্ট]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, দেশে সংক্রমণের গ্রাফ লাগাতার ঊর্ধ্বমুখী থাকায় এখনই দূরপাল্লার বা লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করতে চাইছে না কেন্দ্র। একইভাবে মেট্রো পরিষেবা চালু করা নিয়েও সায় দিতে চাইছে না রেলমন্ত্রক। তবে যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে ২৩০টি স্পেশ্যাল ট্রেন যেমন চলছে তেমনি চলবে। পাশাপাশি, মহারাষ্ট্র সরকারের আবেদনে মুম্বইয়ের লোকাল ট্রেন চলবে বলে জানিয়েছে সরকার।

উল্লেখ্য, সোমবার পূর্ব রেলের এক কর্তার যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের নির্দেশ সংক্রান্ত চিঠি ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায়। তিনি ওই রেলের সব ডিভিশন ও বিভাগীয় প্রধানদের চিঠিতে জানান ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়তি যাত্রীবাহী কোনও ট্রেন চলবে না। এরপরই ছড়িয়ে পরে সেই বার্তা। হাওড়ার ডিআরএম ইশাক খানও জানিয়ে দেন ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়তি যাত্রীবাহী ট্রেন চলবে না। এরপর পূর্ব রেল জানিয়ে দেয়, পূর্ব রেলের সিপিটিএম যে লিখিত নির্দেশ দিয়েছেন তা ঠিক নয়। রেলমন্ত্রকও জানায়, ট্রেন চলাচলের নির্ধারিত কোনও দিন ঠিক হয়নি। পূর্ব রেলের কর্তার নির্ধারিত চিঠি ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। তিনি বোর্ডের নির্দেশের নাম, নম্বর দিয়ে কিভাবে এই চিঠি ইস্যু করলেন তা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে বোর্ড। পূর্ব রেল জানিয়েছে, সিপিটিএম এই চিঠিকে অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে উল্লেখ করলেও তা বাইরে বেরিয়ে গিয়েছে সঙ্গে সঙ্গে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তান থেকে ফোনে খুনের হুমকি, পুলিশের দ্বারস্থ বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement