১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মোদির নামে আর ভোট হবে না, কাজ করতে হবে’, বেফাঁস মন্তব্য বিজেপি রাজ্য সভাপতির

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 28, 2020 9:27 am|    Updated: August 28, 2020 9:27 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ ২০২২ সালে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন (Assembly Elections)। তার আগে বিধায়কদের ‘‌কাজ’‌ করার পরামর্শ দিলেন উত্তরাখণ্ড রাজ্য বিজেপির সভাপতি বংশীধর ভগৎ। কিন্তু এই পরামর্শ দিতে গিয়েই প্রধানমন্ত্রী মোদিকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বেজায় ফাঁসলেন ভগৎ। তাঁর মতে, মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। তাহলেই ভোট মিলবে। কারণ মানুষ আর প্রধানমন্ত্রী মোদির নামে ভোট দেবে না। ভগতের এই বক্তব্যের পরেই বিরোধীদের পালটা খোঁচা, তাহলে কি BJP নেতা স্বীকার করে নিলেন, ‘‌মোদি ম্যাজিক’ গায়েব হয়ে গিয়েছে?

[আরও পড়ুন: পুলওয়ামা হামলার মূলচক্রী মাসুদকে আশ্রয় দেওয়ার জের, পাকিস্তানকে তীব্র ভর্ৎসনা ভারতের]

দলীয় বিধায়কদের উদ্দেশে বার্তা দিতে গিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের বংশীধর ভগৎ বলেন, ‘‌‘‌মানুষ আর প্রধানমন্ত্রীর নামে ভোট দেবে না। তাঁরা ইতিমধ্যেই মোদির (Narendra Modi) নামে ভোট দিয়েছে। আপনাদের কাজই আপনাদের ভোট এনে দেবে। যাঁরা ভাবছেন মোদিজির নামে ভোট বৈতরণী পার করবেন, তাঁরা কিন্তু ভুল করছেন।’‌’ তিনি আরও জানান, ২০২২ সালের বিধানসভা নির্বাচন দলের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই বিধায়কদের নিজের নিজের বিধানসভা কেন্দ্রে যথেষ্ট কাজ করতে হবে। আর কাজের নিরিখেই ভোটের টিকিট পাবেন তাঁরা। বংশীধরের কথায়, ‘‌‘কে কীরকম কাজ করেছে,‌ সেটা পর্যালোচনা করেই দলের তরফ থেকে ভোটে দাঁড়ানোর অনুমতি দেওয়া হবে।‌’‌’ যদিও পরে তিনি বলেন, আশা করি অনেকেই ভাল কাজ করেছেন।

[আরও পড়ুন: আশুতোষ কলেজের ইংরাজির মেধা তালিকায় সানি লিওনের নাম প্রথমে! তুঙ্গে বিতর্ক]

এদিকে, রাজ্য বিজেপি সভাপতির এই বক্তব্য সামনে আসতেই খোঁচা দিতে ছাড়েনি কংগ্রেস (Congress)। তাঁদের বক্তব্য, বংশীধরের এই বক্তব্যই প্রমাণ করে দেয়, ‘‌মোদি ওয়েভ’‌ শেষ। প্রদেশ কংগ্রেসের সহ–সভাপতি সূর্যকান্ত দশমানা এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘‌‘‌ সত্যি কথা বলার জন্য ভগতকে অভিনন্দন। যদিও তিনি সেটা খুব কমই বলে থাকেন। আসলে তিনি মেনে নিলেন, মানুষের মধ্যে মোদির জনপ্রিয়তা আর নেই। সেজন্যই তিনি দলের বিধায়কদের আসন্ন নির্বাচনে ভোট পেতে মানুষের জন্য কাজ করার পরামর্শ দিলেন।’‌’‌

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement