BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জালিয়ানওয়ালাবাগে স্বাধীনতা সংগ্রামীদের পাশে অর্ধনগ্ন নারীর ছবি, তুঙ্গে বিতর্ক

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 20, 2020 10:30 am|    Updated: July 20, 2020 10:45 am

An Images

সংবাদ প্রতিদি্ন ডিজিটাল ডেস্ক: জালিয়ানওয়ালাবাগের (Jallianwala Bagh) ফটো গ্যালারিতে দুই অর্ধনগ্ন নারীর ছবি (Potrait)। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের পাশে ওই ছবি ঘিরে তুঙ্গে উঠেছে বিতর্ক। বিষয়টি নিয়ে এতটাই জলঘোলা হয়েছে যে চিঠি গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) কাছে। কারণ, তিনিই জালিয়ানওয়ালাবাগ (Jallianwala Bagh) ন্যাশনাল মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সভাপতি। ছবিগুলি সরিয়ে নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে। 

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে জালিয়ানওয়ালাবাগের (Jallianwala Bagh) সৌন্দর্যায়ন করছে কেন্দ্র। এ জন্য ২০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। তদারকির দায়িত্বে আছে কেন্দ্রীয় সরকারের আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া (ASI)। তার অঙ্গ হিসেবেই সেখানকার ফটো গ্যালারি সংস্কারেরও কাজ চলছে। জানা গিয়েছে, সেখানে স্বাধীনতা সংগ্রামী এবং প্রথম শিখ ধর্মগুরু গুরু নানকের পোট্রেট (Potrait) রয়েছে। আর তার পাশেই রাখা আছে দুই অর্ধনগ্ন মহিলার ছবি (Potrait)। অজন্তা এবং ইলোরার গুহাচিত্রের সঙ্গে এই ছবির মিল পাওয়া যায়। আর এই দুই নারীর ছবি (Potrait) নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের পাশে অর্ধনগ্ন মহিলার ছবি রাখার যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ছবিগুলিকে অবমাননাকর বলেও মনে করছেন কেউ কেউ। 

[আরও পড়ুন : ভাঙল অতীতের সব রেকর্ড, দেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪০ হাজারেরও বেশি]

পাঞ্জাবের জালিয়ানওয়ালাবাগের (Jallianwala Bagh) সঙ্গে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছে। এখানে ভারতবাসী সেই বীর শহিদদের সম্মান জানাতে আসেন।  সেখানে কীভাবে অর্ধনগ্ন নারীর ছবি ঠাঁই পেল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ইন্টারন্যাশনাল সর্ব কম্বোজ সমাজের সভাপতি ববি কম্বোজ। জালিয়ানওয়ালাবাগ  (Jallianwala Bagh)ন্যাশনাল মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। এই ঘটনায় সরাসরি তাঁর কাছে অভিযোগ জানিয়েছে বেশ কয়েকটি সংগঠন। গ্যালারি থেকে অর্ধনগ্ন দুই নারীর ছবি সরিয়ে ফেলার দাবি জানিয়েছে তাঁরা।

[আরও পড়ুন : আগস্ট নাকি সেপ্টেম্বর, কবে খুলবে স্কুল? কী বলছে কেন্দ্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement