BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বেকারদের প্রতিবাদ! মোদির জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় পালিত হচ্ছে ‘জাতীয় বেরোজগার দিবস’

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 17, 2020 10:47 am|    Updated: September 17, 2020 10:47 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অর্থনীতির অবস্থা তলানিতে। সংস্থান নেই চাকরির। দেশজুড়ে রেকর্ড হারে বাড়ছে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা। সরকারি চাকরির প্রতিশ্রুতি মিলছে বটে, কিন্তু পরীক্ষা বা নিয়োগ কোনওটাই হচ্ছে না। হচ্ছে শুধু ফর্ম পূরণ। এই অব্যবস্থার প্রতিবাদের জন্য এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জন্মদিনকেই (PM Modi birthday) বেছে নিয়েছে দেশের যুবসমাজের একাংশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদির জন্মদিন পালিত হচ্ছে ‘জাতীয় বেরোজগার দিবস’ হিসেবে।

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ৭০ তম জন্মদিন। আর এদিন সকাল থেকেই #NationalUnemploymentDay, #राष्ट्रीय_बेरोजगार_दिवस, #बेरोजगार_दिवस -এর মতো একাধিক হ্যাশট্যাগের টুইটে ছেয়ে গিয়েছে টুইটার। এই প্রতিবেদন লেখা শেষ হওয়া পর্যন্ত শুধু টুইটারেই ‘জাতীয় বেরোজগার দিবস’ সম্পর্কিত ২০ লক্ষের বেশি পোস্ট হয়ে গিয়েছে। টুইটারে মোদির জন্মদিনের শুভেচ্ছাবার্তাকেও ছাপিয়ে গিয়েছে মোদি বিরোধী এই টুইটগুলি। এই মুহূর্তে টুইটার ট্রেন্ডিংয়ে সবার উপরে #NationalUnemploymentDay হ্যাশট্যাগটি। আসলে এই ট্রেন্ড শুরু হয়েছিল ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠান থেকে। জয়েন্ট পরীক্ষার ঠিক আগে যে ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠান মোদি করেছিলেন, তাতে লাইকের থেকে কয়েকগুণ বেশি পড়েছিল ডিসলাইক। সেই ধারা এখনও চলছে।

[আরও পড়ুন: ‘ক্রোনোলজিটা বুঝুন’, চিন ইস্যু নিয়ে ফের মোদি সরকারকে খোঁচা রাহুলের]

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনকে জাতীয় বেরোজগার দিবস হিসেবে পালন করার এই কর্মসূচি অবশ্য যুব কংগ্রেসের। মূলত যুব কংগ্রেসের সদস্যরাই এই হ্যাশট্যাগগুলি ব্যবহার করে টুইট করছেন। যদিও কংগ্রেসের দাবি, মোদির জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে তাঁদের এই আন্দোলন গণ আন্দোলনের রূপ নিয়েছে। বস্তুত, টুইটের সংখ্যাটাও সেদিকেই ইঙ্গিত করছে। আসলে, বাস্তবিকই করোনাকালে রোজগার হারিয়ে বহু মানুষ সরকারের উপর ক্ষুব্ধ। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ক্ষোভেরই বহিঃপ্রকাশ হচ্ছে বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement