১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পাখির চোখ উত্তরপ্রদেশের ভোট! এবার অযোধ্যায় দীপোৎসবের উদ্বোধন করতে পারেন মোদি

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 8, 2021 5:23 pm|    Updated: September 8, 2021 5:23 pm

PM Modi likely to inaugurate 10-day Deepotsav celebrations in Ayodhya। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবছর অযোধ্যার (Ayodhya) দীপাবলি অর্থাৎ দীপোৎসবের (Deepotsav) সূচনা হতে চলেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) হাত ধরে। গত কয়েক বছর ধরে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথই (Yogi Adityanath) এই উৎসবের উদ্বোধন করে এসেছেন। কিন্তু এবার স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরেই সূচনা হতে পারে দীপাবলির। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি তেমনটাই।

কিন্তু কেন? হঠাৎ আদিত্যনাথের স্থানে কেন মোদি? আসলে আগামী বছর উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনকেই ‘পাখির চোখ’ করে এগোতে চেয়েই এই পরিকল্পনা। এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: এবার National Defence Academy-তে ভরতি করা যাবে মেয়েদেরও, ‘ঐতিহাসিক’ সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের]

আগামী ৩ নভেম্বর দীপাবলি উৎসব শুরু হতে চলেছে। দাবি অনুযায়ী, ওইদিনই অযোধ্যায় থাকবেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর সামনে গিনিস রেকর্ডে নয়া নজির গড়ে তুলতে এবার সাড়ে ৬ লক্ষ প্রদীপ জ্বালানোর পরিকল্পনা করছেন উদ্য়োক্তারা। অযোধ্যার উন্নয়ন পর্ষদের সহসভাপতি বিশাল সিং এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় জানিয়েছেন, ”যদি প্রধানমন্ত্রী আবার অযোধ্যায় আসেন, নিঃসন্দেহে তা আমাদের জন্য সৌভাগ্যের। বিখ্যাত বলিউড শিল্প নির্দেশক নীতিন চন্দ্রকান্ত দেসার দীপাবলির মঞ্চকে সাজাতে একটি বিশেষ সেটের পরিকল্পনা করেছেন। তার রাজ্য সরকারের সম্মতির অপেক্ষায়। শিগগিরি এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

আগামী বছর উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনের আগে, বর্তমান যোগী আদিত্যনাথ সরকারের এটাই শেষ দীপাবলি। সেই কারণে এবার অযোধ্যার দীপাবলিকে আরও ‘হাই ভোল্টেজ’ করতে তুলতেই প্রধানমন্ত্রীকে আনার পরিকল্পনা বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন: দেশে নারী নির্যাতনের অভিযোগ বাড়ল ৪৬ শতাংশ, শীর্ষে উত্তরপ্রদেশই]

প্রসঙ্গত, গত ২৯ আগস্ট অযোধ্যা সফরে গিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। রাম জন্মভূমি নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে তিনি জানিয়েছিলেন, ”রাম ছাড়া অযোধ্যা অযোধ্যা থাকে না। অযোধ্যার অস্তিত্ব সেখানেই যেখানে রাম আছেন। ভগবান রাম এই শহরের স্থায়ী বাসিন্দা।” এমনকী, তাঁর নিজের নামকরণের ক্ষেত্রেও রামায়ণের প্রভাবই ছিল বলে জানান তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে