২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘বাংলায় BJP কর্মীরা খুন হচ্ছেন’, জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক থেকে তোপ মোদির

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 3, 2022 6:23 pm|    Updated: July 3, 2022 6:23 pm

PM Modi slams Bengal for political murders

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গেরুয়া শিবিরের জাতীয় কর্মসমিতিতেও চর্চায় ‘বাংলার সন্ত্রাস’! জেপি নাড্ডার (J P Nadda) পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দাবি করলেন, বাংলায় কঠিন পরিস্থিতিতে লড়াই করছেন বিজেপির (BJP) কর্মীরা। বাংলা-সহ একাধিক রাজ্যে দলীয় কর্মীদের হত্যা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর এই দাবিকে অবশ্য খারিজ করে দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। তাঁর কথায়, “সাহস থাকলে ন্যাশনাল ক্রাইম ব্যুরোর রেকর্ডটা দেখান। মোদি-অমিত শাহ ঘুমোতে যাওয়ার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের ভূত দেখেন।”

জাতীয় কর্মসমিতির শেষ দিনে বক্তব্য রাখেন মোদি (Narendra Modi)। সেখান থেকে দলীয় কর্মীদের পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি সতর্কও করে দেন। বলেন, “বহু রাজনৈতিক দল এদেশে দাপট দেখিয়েছে। কিন্তু এখন তারা অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে। এদের দেখে আমাদের শিখতে হবে। সতর্ক থাকতে হবে যাতে ওদের করা ভুলগুলো যেন আমরা না করি।” একইসঙ্গে মাঠে নেমে কর্মীদের লড়াইকেও কুর্নিশ জানিয়েছেন তিনি।

 

[আরও পড়ুন: রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে কলকাতা আসছেন দ্রৌপদী মুর্মু, মমতার সমর্থন পাওয়াই লক্ষ্য?]

 

কর্মসমিতির শুরুতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার মুখে  বাংলায় বিজেপি কর্মীদের উপর অত্যাচারের কথা উঠে এসেছিল। এদিন ফের মোদির মুখে বাংলায় দলীয় কর্মী খুনের প্রসঙ্গ শোনা যায় বলে দাবি করেছেন রাজ্য বিজেপির একাধিক নেতা। এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, “মোদিজির মুখে দু’বার বাংলার কথা উঠে এসেছে। উনি বলেছেন, বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা চলছে। তারপরেও নিজেদের আর্দশচ্যুত হয়নি দলের কর্মীরা। তাঁদের প্রশংসা করেন মোদিজি। বলেন, তেলেঙ্গানা, কেরল, বাংলায় বিজেপির কর্মীদের খুন করা হচ্ছে।”

 

এর পালটা দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। তাঁর কথায়, মোদি-শাহ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূত দেখেন। কারণ, একমাত্র এখানেই ওদের বিরুদ্ধে মাথা উঁচু করে লড়াই করছেন দিদি। এজেন্সি দিয়ে ভয় দেখিয়েও কোনও লাভ পাচ্ছে না। তাই এসব বলছেন।” এরপর তাঁর চ্যালেঞ্জ, “সাহস থাকলে ন্যাশনাল ক্রাইম ব্যুরোর রেকর্ডটা দেখান। তাহলে ধর্ষণ, খুনে কোনও রাজ্য কোথায় আছে তা স্পষ্ট হয়ে যাবে।”

[আরও পড়ুন: করোনা কালেও গরিব কল্যাণে এগিয়ে মোদি সরকার, জাতীয় বৈঠকে নোবেলজয়ীদের বিঁধল বিজেপি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে