১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

টিয়াপাখির সঙ্গে খেলা! গুজরাটে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধনে গিয়ে জঙ্গল সাফারিতে প্রধানমন্ত্রী

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 31, 2020 9:31 am|    Updated: October 31, 2020 12:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ বিশ্বের সর্বোচ্চ মূর্তি ‘স্ট্যাচু অফ ইউনিটি’ (Statue of Unity) যেখানে অবস্থিত, সেই কেবাডিয়াকে পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে শুক্রবার চারটি প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। তার মধ্যে রয়েছে আরোগ্য বন, একতা মল, ছোটদের পুষ্টি পার্ক ও সর্দার প্যাটেল জুলজিক্যাল পার্ক। সেই উপলক্ষে আরও একবার প্রধানমন্ত্রীকে দেখা গেল প্রকৃতির সঙ্গে নিবিড় সংযোগ গড়ে তুলতে।

সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের জন্মদিন শনিবার। সেই উপলক্ষে দু’দিনের সফরে গুজরাটে (Gujarat) গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার ও শনিবার মিলিয়ে এখানে মোট সতেরোটি প্রকল্পের উদ্বোধন করার কথা তাঁর। তারই অংশ হিসেবে প্রথম দিন কেবাডিয়ায় এই প্রকল্পগুলির সূচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার রাতেও কেবাডিয়াতেই ছিলেন তিনি। 

[আরও পড়ুন: লকডাউনে কর্মহীন মা, চা বিক্রি করে বোনেদের পড়াশোনার খরচ সামলাচ্ছে কিশোর]

এদিন জুলজিক্যাল পার্কের উদ্বোধনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে দেখা যায় বন্য প্রকৃতির মধ্যে নিজের মতো করে সময় কাটাতে। বিশেষ করে টিয়াপাখিদের সঙ্গে তাঁকে অনেকক্ষণ খেলা করতে দেখা যায় তাঁকে। দু’হাতে দু’টি টিয়াকে বসানোর চেষ্টা করছিলেন তিনি। তাদের একটি উঠে পড়ে তাঁর কাঁধেও। পরে একটি ম্যাকাও পাখিকেও হাতে বসাতে দেখা যায় তাঁকে। চিতাবাঘ ও বাঘের খাঁচার সামনেও তাঁকে দেখা যায়। বাঘের ছাপওয়ালা গাড়িতে করে পার্কের বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে বেড়ান তিনি। তাঁর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপাণি এবং গুজরাটের রাজ্যপাল আচার্য দেবব্রত। বেয়ার গ্রিলসের ‘ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড’ শোয়ে বা তারও আগে-পরে বারবার প্রধানমন্ত্রীর প্রকৃতির সান্নিধ্যলাভের প্রতি আকর্ষণ দেখা গিয়েছে। এদিনও তা আরেকবার দেখা গেল।

তবে এদিন প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেছিলেন ১৭ একর জমির উপরে বিস্তৃত ‘আরোগ্য বনে’র। সেখানে থাকবে ভেষজ গাছপালা। ৩৮০ প্রজাতির প্রায় পাঁচ লক্ষ গাছগাছড়ায় ঘেরা এই জায়গাটিতে যোগাসনের প্রতিও সকলকে উৎসাহিত করা হবে। ক্যাফেটেরিয়ায় মিলবে আয়ুর্বেদ নির্ধারিত স্বাস্থ্যকর খাবার-দাবার।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী এদিন উদ্বোধন করেন ৩৫ হাজার বর্গ ফুটের প্রযুক্তি-নির্ভর পুষ্টি পার্কেরও। বাচ্চাদের মনোরঞ্জনের উপকরণের বিপুল সমাহার রয়েছে এখানে। টয় ট্রেন থেকে ৫-ডি সিনেমা দেখার সুযোগ মিলবে এই পার্কে। উদ্দেশ্য দেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে খাদ্যশস্যের গুণাগুণ শেখানো।

[আরও পড়ুন: কে পেল ‘আচ্ছে দিন’? ভিভিআইপি বিমান প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদিকে কটাক্ষ রাহুলের]

আর একতা মলে মিলবে বিভিন্ন রাজ্যে তাঁত এবং হস্তশিল্প পণ্য। দোতলা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই ম‌ল প্রায় ৩৫ হাজার স্কোয়ার ফুট এলাকা জুড়ে অবস্থিত। এছাড়াও শুক্রবার সন্ধেবেলা সর্দার সরোবর বাঁধের উপরে ‘ডায়নামিক লাইটিং’, ইউনিটি গ্লো গার্ডেনের মতো আরও একগুচ্ছ নতুন আকর্ষণের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement