BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দিল্লির বাজারে IED বিস্ফোরক রাখার পিছনে পাকিস্তান! গোয়েন্দাদের সন্দেহের তির আইএসআইয়ের দিকে

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 16, 2022 1:39 pm|    Updated: January 16, 2022 4:14 pm

Police suspect Pakistan's role in recovery of IED at Delhi's Ghazipur market | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত শুক্রবারই রাজধানী দিল্লির (Delhi) বুকে ধরা পড়েছিল বড়সড় নাশকতার ছক। কে বা কারা এই বিস্ফোরক (IED) ভরতি ব্যাগটি গাজিপুর ফুল বাজারে রেখেছিল, সেটা প্রাথমিক ভাবে জানা যায়নি। কিন্তু তদন্ত এগোতেই ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে এর পিছনে রয়েছে পাকিস্তান! দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের অনুমান তেমনই।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, গোয়েন্দারা যা সূত্র পাচ্ছেন তা থেকে মনে করা হচ্ছে নিশ্চিত ভাবেই পাক গোয়ে‌ন্দা সংস্থা আইএসআই এই নাশকতার ফন্দি এঁটেছিল। যদিও সৌভাগ্যবশত তাদের চক্রান্ত সফল হয়নি। অন্যথায় ভরা বাজারের মধ্যে বিস্ফোরণ হলে ব্যাপক প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতি হতে পারত।

[আরও পড়ুন: TMC in Goa: গোয়ায় জোটের প্রস্তাব দিয়েছিল তৃণমূল, এখনও জবাব দেয়নি কংগ্রেস! নতুন দাবি মহুয়ার]

পুলিশ সূত্রে খবর, শুক্রবার সকাল ১০টা ২০ নাগাদ রাজধানীর দমকল দপ্তরে পরিত্যক্ত ব্যাগটি উদ্ধার করার জন্য ফোন করা হয়। সেই ফোনের সূত্র ধরেই দিল্লি পুলিশের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে যান। ব্যাগটিতে বিস্ফোরক থাকতে পারে সন্দেহে খবর দেওয়া হয় বিশেষজ্ঞ এনএসজি কম্যান্ডারদের। পাঠানো হয় বম্ব ডিসপোজাল স্কোয়াডও।

গোটা এলাকা ফাঁকা করে বিস্ফোরকটি উদ্ধার করা হয়। বাজারের কাছে একটি ফাঁকা মাঠেই বোমাটি নিষ্ক্রিয় করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, বিস্ফোরক ভরতি ব্যাগটি ভরা বাজারেই গড়াগড়ি খাচ্ছিল। সময়মতো সেটা উদ্ধার করা না গেলে বড়সড় বিপদ হতে পারত। প্রশ্ন উঠছে, পুলিশের নজর এড়িয়ে ভরা বাজারে এই ধরনের বিস্ফোরক পৌঁছল কীভাবে।

[আরও পড়ুন: আচমকা পাঞ্জাবের ভোট পিছিয়ে দেওয়ার দাবি কংগ্রেসের, নির্বাচন কমিশনকে চিঠি মুখ্যমন্ত্রী চান্নির]

দিল্লির পুলিশ কমিশনার রাকেশ আস্তানা (Rakesh Astana) জানিয়েছেন, ফোন পাওয়া মাত্রই দিল্লি পুলিশের (Delhi Police) আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আইইডি বিস্ফোরকটি উদ্ধার করেছেন। বিস্ফোরক আইনের আওতায় দিল্লি পুলিশের স্পেশ্যাল সেলে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রের খবর। তবে এর পিছনে কোন জঙ্গি গোষ্ঠীর হাত রয়েছে তা প্রথমে বোঝা না গেলেও অবশেষে উঠে এল পাকিস্তানের ভূমিকার আশঙ্কা। যা ক্রমশই তীব্র হচ্ছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে