২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংসদে সদ্য তৈরি হওয়া প্রতিরক্ষা কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন মধ্যপ্রদেশের ভোপালের সাংসদ প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর। যা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে দেশজুড়ে। উগ্র হিন্দুত্ববাদের প্রচারক ওই নেত্রীর সমালোচনা সরব হয়েছে বিরোধীরা। তাঁর মতো বিস্ফোরণে অভিযুক্ত একজনকে কীভাবে প্রতিরক্ষা কমিটির মতো গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় বসানো হল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে। ঠিক সেই মুহূর্তে ভোপালের বিজেপি সাংসদকে প্রতিরক্ষা কমিটিতে জায়গা দেওয়ার পিছনে পাকিস্তানকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে মন্তব্য করলেন এক কংগ্রেস নেতা। মধ্যপ্রদেশের কমল নাথ মন্ত্রিসভার ওই সদস্যের নাম গোবিন্দ সিং।

[আরও পড়ুন: জেসিবি মেশিন ধরে ঝুলছে মহিলা গ্রাম প্রধান, ভাইরাল ভিডিও]

শীতকালীন অধিবেশনের শুরুতেই প্রতিরক্ষা বিষয় একটি পরামর্শদানকারী কমিটি তৈরি হয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে। ওই কমিটিতেই জায়গা পেয়েছেন প্রজ্ঞা। এই বিষয় নিয়ে বৃহস্পতিবার কেন্দ্রের শাসকদল বিজেপিকে কটাক্ষ করেন কংগ্রেস নেতা গোবিন্দ সিং। তিনি বলেন, ‘প্রজ্ঞা ও তাঁর পরিবারকে আমি ছোটবেলা থেকেই চিনি। ওর বাবা আমার বন্ধু ছিল আর ওদের বাড়ি আমাদের থেকে ১০০ মিটার দূরে ছিল। তাই জন্ম থেকেই ওকে চোখের সামনে বড় হতে দেখেছি আমি। ছোটবেলা থেকে ওর মধ্যে অনেক কিছু দেখেছি। তাই আমার মনে হয় ওর মাথাকে ব্যবহার করে পাকিস্তানকে ধ্বংস করতে চাইছে দেশ।’

[আরও পড়ুন: পার্শ্বশিক্ষিকার মৃত্যুতে ক্ষোভের ঢেউ সংসদে, তৃণমূলকে দায়ী করে সুর চড়ালেন লকেট]

তাঁর এই কথা শুনে হাসির রোল ওঠে উপস্থিত সাংবাদিকদের মধ্যে। এরপরই মধ্যপ্রদেশের ভিন্দ জেলার লাহারের বিধায়ক গোবিন্দ সিং বলেন, ‘আমি ওকে এই প্যানেলে রাখিনি। এটা ওদের (বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারের) সঠিক সিদ্ধান্ত বলে মনে হয়েছে তাই নিয়েছে। এটা ওদের মন্ত্রী আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত। আর প্রজ্ঞা সেই সিদ্ধান্ত মেনে কাজ করবেন।’

২০০৮ সালের মালেগাঁও বিস্ফোরণ মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরকে নিয়ে আগেও বিতর্ক তৈরি হয়েছে। যদিও তাতে কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই বিজেপির এই ফায়ারব্যান্ড নেত্রীর।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং