২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবৈধ নির্মাণ ভাঙতে গিয়ে গন্ডগোলে জড়িয়ে পড়লেন সরকারি আধিকারিকরা। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছল যে তাঁদের নিয়ে যাওয়া জেসিবি মেশিন ধরে ঝুলতে দেখা গেল একটি গ্রাম পঞ্চায়েতের মহিলা প্রধানকে। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের জালোর এলাকায়। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হতেই তা ভাইরাল হয়েছে। যদিও সরকারি কর্মচারীদের কাজে বাধা দেওয়ার জেরে ওই মহিলার বিরুদ্ধে প্রশাসন ব্যবস্থা নিতে চলেছে খবর।

[আরও পড়ুন: অমানবিক, হাত-পা বাঁধা অবস্থায় আমেরিকা থেকে বহিষ্কৃত ১৪৫ জন ভারতীয়]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, জালোর এলাকার মান্ডাওয়ালা গ্রামে অবৈধ নির্মাণ ভাঙতে জেসিবি মেশিন নিয়ে এসেছিলেন সরকারি আধিকারিকরা। প্রথমে তাঁদের বাধা দেন স্থানীয় বাসিন্দারা। কিন্তু, তারপরও কাজ থামেনি। তাই খবর দেওয়া স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান রেখা দেবীকে। তিনি প্রথমে এসে সরকারি আধিকারিকদের কাজ থামিয়ে ফিরে যেতে বলেন। কিন্তু, তাঁর কথায় গুরুত্ব না দিয়ে কাজ করতে শুরু করেন জেসিবি মেশিনের চালক। তখন ঝাঁপিয়ে উঠে জেসিবির সামনের অংশ ধরে ঝুলে পড়েন তিনি। যতবার জেসিবি মেশিনটি উপরে তোলা হচ্ছিল ততবার মেশিনটির সামনের ডালা ধরে সেটিকে মাটিতে নামাতে থাকেন।

[আরও পড়ুন: পার্শ্বশিক্ষিকার মৃত্যুতে ক্ষোভের ঢেউ সংসদে, তৃণমূলকে দায়ী করে সুর চড়ালেন লকেট]

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি জায়গায় বেশ কয়েকজন দাঁড়িয়ে রয়েছে। আর একটি হলুদ রঙের জেসিবি মেশিনের সামনের ডালা ধরে নিচে নামানোর চেষ্টা করছেন এক মহিলা। জেসিবির চালক সেটিকে ফের উপরে উঠিয়ে দিলে এক ব্যক্তি ওই মহিলা প্রধানকে ধরে নিচে নামান।

পরে এসম্পর্কে ওই মহিলা রেখা দেবী বলেন, ‘ওই জায়গাটা পঞ্চায়েতের। তা সত্ত্বেও ওখানে বেআইনিভাবে ভাঙচুর চালানো হচ্ছিল। আমি প্রতিবাদ করেছি। তাই ওরা আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে।’ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং