২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ছাপোষা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সারেঙ্গির রাজনৈতিক জীবনেও রয়েছে কালির ছিটে

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 31, 2019 5:41 pm|    Updated: May 31, 2019 5:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘সাবকা সাথ, সাবকা বিকাশ, সাবকা বিশ্বাস’, এই স্লোগান দিয়েই দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ মন্ত্রিসভায় সমাজের সকল স্তরের মানুষকে ঠাঁই দিয়েছেন তিনি৷ যাঁদের মধ্যে সবচেয়ে বড় চমক ‘ওড়িশার মোদি’ প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গি৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় দৌলতে দেশবাসীর কাছে ইতিমধ্যেই পরিচিতি লাভ করেছেন বালাসোরের এই সাদামাটা সাংসদ৷ তাঁর ছাপোষা জীবনযাত্রা আকৃষ্ট করেছে নেটিজেনদের৷ তবে প্রদীপের নীচে যেমন অন্ধকার থাকে, তেমনই সারেঙ্গির জীবনেও রয়েছে কালিমালিপ্ত অধ্যায়৷ যে মানুষটিকে দেখে নীরিহ মনে হয়, জানা গিয়েছে ২০০২ সালে  ওড়িশা বিধানসভা হামলার ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন তিনি৷ সরকারি সম্পত্তি নষ্ট-সহ একাধিক অভিযোগে তাঁকে গ্রেপ্তারও করেছিল ওড়িশা পুলিশ৷ এখানেই শেষ নয়, অস্ট্রেলিয়ার ধর্মপ্রচারক গ্রাহাম স্টেইনের হত্যাকাণ্ডেও তাঁর বিরুদ্ধে সন্দেহের আঁচ ছিল৷ যদিও তদন্তে কখনও তাঁর নাম উঠে আসেনি৷ 

[ আরও পড়ুন: ‘যেন সামনে বাবা বসে রয়েছেন’, মোদি-শাহর আশীর্বাদে আপ্লুত মন্ত্রী দেবশ্রী]

দীর্ঘদিন ধরেই রাজনীতির সঙ্গে যোগ রয়েছে তাঁর, কিন্তু অন্যান্য রাজনীতিকদের থেকে অনেকটাই আলাদা তাঁর জীবনযাত্রা৷ সম্পত্তি বলতে রয়েছে একটি কুড়ে ঘর ও একটি সাইকেল৷ আর নিজের লোক বলতে রয়েছে এলাকার ছোট বাচ্চারা৷ জানা গিয়েছে, ১৯৫৫-তে ওড়িশার নীলগিরিতে জন্মেছিলেন প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গী৷ পড়াশোনা শেষ করে আধ্যাত্মিক জীবনের প্রতি আগ্রহী হয়ে ওঠেন৷ সাধনার পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নেন৷ কিন্তু বেলুড়ের মহারাজদের নির্দেশে আবারও ঘরে ফেরেন তিনি৷

[ আরও পড়ুন: ফের উত্তপ্ত উপত্যকা, সোপিয়ান থেকে দুই জঙ্গির দেহ উদ্ধার ভারতীয় সেনার ]

এর আগে ২০০৪ ও ২০০৯ সালে দু’বার ওড়িশার বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গি৷ মজার বিষয় হল, ২০০৯-তে বিজেপির তরফে তিনি প্রার্থী ঘোষিত হলেও, নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী হিসাবে লড়েন তিনি৷ কারণ, দলের টিকিট নিয়ে বাসে করে বাড়ি ফেরার পথে, সেই টিকিট হারিয়ে ফেলেন প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গি৷ সূত্রের খবর, এই অত্যন্ত সাদামাটা স্বভাবের জন্যই সকলের বিশ্বাস ও নির্ভরতার আরেক নাম হয়ে ওঠেন প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গি৷ গত লোকসভা নির্বাচনেও বালাসোর থেকেই বিজেপির প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি৷ কিন্তু সামান্য ভোটের ব্যবধানে হেরে গিয়েছিলেন৷ তবে এবার ১২ হাজারের কিছু বেশি ভোটে বিজেডি প্রার্থীকে হারিয়ে তিনি জয় পেয়েছেন৷ ওড়িশায় এলে যে ব্যক্তির সঙ্গে অবশ্যই দেখা করেন, এবার তাঁকেই নিজের মন্ত্রিসভায় ঠাঁই দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ বালাসোরের সাংসদকে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প মন্ত্রক এবং পশু, গোপালন ও মৎস্য মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী করলেন তিনি৷ 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement