BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাড়ছে লকডাউন? আজ ফের জাতির উদ্দেশে ভাষণ প্রধানমন্ত্রীর

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 12, 2020 12:54 pm|    Updated: May 12, 2020 12:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের পরই মঙ্গলবার ফের জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। এদিন দুপুর ১২ টা নাগাদ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে টুইট করে জানানো হয়েছে, ‘আজ রাত আটটায় জাতির উদ্দেশ্য ভাষণ দেবেন শ্রী নরেন্দ্র মোদি।’ তবে তাঁর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে এখনও স্পষ্ট কোনও ধারণা পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, সোমবারই দেশের সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৬ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে লকডাউন প্রসঙ্গে সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের মতামত জানতে চান তিনি। সূত্রের খবর, বেশ কয়েকটি বড় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী লকডাউন বাড়ানোর পক্ষে সওয়াল করেছেন। কয়েকটি রাজ্য আপত্তি জানালেও সংখ্যাগরিষ্ঠ মত চতুর্থ দফার লকডাউনের পক্ষেই।

[আরও পড়ুন: করোনা আবহে বাংলার ভাঁড়ারে সাময়িক স্বস্তি, ৪১৭ কোটি টাকা প্রাপ্য মেটাল কেন্দ্র]

এদিকে মঙ্গলবার দেশের লকডাউন ৪৯ দিনে পড়ল। কিন্তু টানা এই ৪৯ দিনের লকডাউনেও করোনা সংক্রমণের গতি নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। এই পরিস্থিতিতে লকডাউন বাড়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। এর মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন বলে ঘোষণা করে দেওয়া হল। অর্থাৎ, কেন্দ্র লকডাউনের ভবিষ্যৎ নিয়ে কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে বলেই মনে করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আজ প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের দিকে নজর থাকবে গোটা দেশের।

[আরও পড়ুন: ‘ঘরে ফিরতে চাওয়াই মানবপ্রবৃত্তি, কিন্তু সংক্রমণ রুখতে হবে’, বৈঠকে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর]

আরও একটি লক্ষণীয় বিষয় হল, বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে আর্থিক ধাক্কা সামলাতে দ্বিতীয় দফায় বড়সড় প্যাকেজ ঘোষণা করতে চলেছে কেন্দ্র। যার হিসেব-নিকেশও নাকি সারা হয়ে গিয়েছে। শুধু মন্ত্রিসভার সম্মতি বাকি। এদিন প্রধানমন্ত্রী আর্থিক প্যাকেজ নিয়েও ইঙ্গিত দিতে পারেন। যদিও সে সম্ভাবনা কম।কারণ এখনও পর্যন্ত মন্ত্রিসভা প্যাকেজের প্রস্তাবে ছাড়পত্র দেয়নি। তাছাড়া আর্থিক প্যাকেজ আগেরবার অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন। আর প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন লকডাউন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement