২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

রাহুলের নির্দেশ পেলেই বারাণসীতে লড়বেন, জানিয়ে দিলেন প্রিয়াঙ্কা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 21, 2019 8:28 pm|    Updated: April 21, 2019 8:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভায় বারাণসীতে এবারে ক্লাশ অব দ্য টাইটানস হওয়া কি শুধু সময়ের অপেক্ষা? অন্তত প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর কথায় তাই মনে হচ্ছে। তিনি সাফ জানিয়ে দিলেন, “মোদির বিরুদ্ধে বারাণসীতে প্রার্থী হতে আমি প্রস্তুত। শুধু দলের সভাপতি নির্দেশ দিলেই নির্বাচনী লড়াইয়ে নেমে পড়ব।”

[আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রে বিজেপির মাথাব্যথার কারণ রাজ ঠাকরের বিশাল ‘অরাজনৈতিক’ জনসভা]

বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে বারাণসীতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে দাঁড় করাতে পারে কংগ্রেস। নেতাদের ধারণা, প্রিয়াঙ্কাকে বারাণসীতে দাঁড় করালে মোদিকে যথেষ্ট বেগ দেওয়া যেতে পারে। প্রথমত, বারাণসীতে একসময় নেহেরু লড়তেন। তাই উচ্চবর্ণের ব্রাহ্মণদের মধ্যে কংগ্রেসের জনপ্রিয়তা আছে। তাছাড়া যদি সপা-বসপা জোট প্রার্থী না দেয় তাহলে দলিত-মুসলিম ভোটও কংগ্রেসের ঝুলিতে যাবে। তাই, লড়াইটা হবে সেয়ানে সেয়ানে।

তাছাড়া, প্রিয়াঙ্কা যদি হেরেও যান প্রথমবার নির্বাচনে নেমে তাতেও ক্ষতি কিছু নেই। উলটে, প্রিয়াঙ্কাকে দাঁড় করালে মোদিকে নিজের কেন্দ্রে অনেকদিন আটকে রাখা যাবে। তিনি নিজের কেন্দ্রের প্রচারে আরও বেশি সময় ব্যয় করবেন, যা সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে কংগ্রেসকে সহযোগিতা করবে। তাছাড়া, প্রিয়াঙ্কা সরাসরি মোদিকে চ্যালেঞ্জ করলে দলের কর্মীদের সামনে থেকে লড়াই করার বার্তাও দিতে পারবেন তিনি। এই ধারণা থেকেই, বারাণসীতে সদ্য নিযুক্ত সাধারণ সম্পাদককে দাঁড় করানোর দাবি জানিয়ে আসছেন কংগ্রেস কর্মীরা। কংগ্রেসের বারাণসী ইউনিটের তরফে একটি প্রস্তাব পাশ করিয়ে দলের কাছে প্রিয়াঙ্কাকে প্রার্থী করার দাবিও জানান।

[আরও পড়ুন: ‘দেশ ভালবাসেন না’, বিজেপিতে যোগ দিয়েই সোনিয়াকে আক্রমণ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

প্রিয়াঙ্কা বঢরা নিজেও সেই জল্পনা উসকে দিয়েছিলেন আমেঠিতে প্রচার করার সময়। দলীয় কর্মীরা তাঁকে অনুরোধ করেছিলেন মায়ের আসন রায়বরেলি থেকে নির্বাচন লড়ার জন্য। তখন তিনি বলেন, শুধু রায়বরেলি কেন দল চাইলে বারাণসীতেও প্রার্থী হতে রাজি তিনি। রবিবার ওয়ানড়ে সভা ছিল প্রিয়াঙ্কার। সেখানেও তিনি জানিয়ে দিলেন, মোদিকে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত। তবে, আপাতত বল রাহুল গান্ধীর কোর্টে। তিনি, নিজের সেরা অস্ত্রকে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামাবেন নাকি ধীরে চলো নীতি নেবেন, সেটাই এখন দেখার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement