৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo ফিরে দেখা ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ঘিরে উত্তাল উত্তর-পূর্ব। সোমবার সকাল থেকেই অসম-সহ একাধিক রাজ্যে এই বিলের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে পড়েছেন বিক্ষোভকারীর। অসমে প্রতিবাদের নেতৃত্বেঅল অসম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন’ বা আসু। তাদের দাবি, এই বিলটি অসম চুক্তির অবমাননা। ত্রিপুরার রাজধানী অগরতলাতেও চলছে প্রতিবাদী কার্যসূচী। দুই রাজ্যেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত বাহিনী।

গুয়াহাটিতে ছাত্র সংগঠন ‘আসু’-র নেতৃত্বে চলছে বিক্ষোভ মিছিল। পাশাপাশি কংগ্রেসও সুর চড়িয়েছে। তবে এর আগে আরএসএস-এর ছাত্র সংগঠন ‘অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের সমর্থনে পালটা মিছিল বের করে। মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মিজোরামেও কেন্দ্রের এই বিলটির বিরুদ্ধে সুর চড়ছে। এদিক, সোমবার ও মঙ্গলবার টানা ৪৮ ঘণ্টার বনধ ডেকেছে আসু-সহ একাধিক সংগঠন। ফলে স্বভাবিকভাবেই বিপর্যস্ত সাধারণ জনজীবন। বিশেষ করে, আপার অসমের জেলাগুলি , যেমন–তিনসুকিয়া, ডিব্রুগড়, জোরহাট ও গোলঘাটে বনধের প্রভাব সর্বাত্মক। এদিকে, রাজ্যের শাসকদল বিজেপি ও শরিক অসম গণ পরিষদের বিরুদ্ধেও আছড়ে পড়েছে জনরোষ। গুয়াহাটি-সহ একাধিক জায়গায় উপ-মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়েছে। ছাত্র সংগঠন আসু’র উপদেষ্টা সমুজ্জ্বল ভট্টাচার্য কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘অসম বিদেশিদের ডাস্টবিন নয়। হিন্দুই হোক বা মুসলমান কোনও বাংলাদেশিকেই আশ্রয় দেওয়া হবে না। এর অন্যথায় ফল হবে ভয়ঙ্কর।’

এদিকে, মেঘালয়ের রাজনৈতিক দল এনএনপি থেকে মিজোরামের এমএনএফ সাফ জানিয়ে দিয়েছে বিজপির বা হিমন্ত বিশ্বশর্মার মস্তিস্কপ্রসূত ‘নর্থইস্ট ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স’ বা ‘নেডা’র শরিক হলেও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটিকে কোনভাবেই সমর্থন করবে না তাঁরা। তবে নিয়তির পরিহাসে, ‘বাঙাল খেদাও’ বা অসম আন্দোলনের আবহে জন্ম নেওয়া অসম গণ পরিষদ এই বিলটির পক্ষেই সায় দিয়েছে। উল্লেখ্য, সোমবার বেলা ১২ টা নগদ লোকসভায় বিলটি পেশ করবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বলা বাহুল্য এই নিম্নকক্ষে বিলটি পাশ হওয়া সময়ের অপেক্ষা। এদিকে বিলটি পাশ হলে ফের কি উত্তর-পূর্বে আগুন জ্বলবে, তা সময়ই বলবে।

[আরও পড়ুন: আজ লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, তপ্ত হতে পারে কক্ষ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং