BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ওড়িশার পর এবার পাঞ্জাব, ১ মে অবধি লকডাউনের মেয়াদ বাড়ালেন অমরিন্দর সিং

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 10, 2020 4:21 pm|    Updated: April 10, 2020 9:24 pm

An Images

সোমনাথ রায়: ‘পাঞ্জাবে গোষ্ঠী সংক্রমণের (Community Transmission) শিকার হয়েছেন ২৭ জন।’ শুক্রবার এক সাংবাদিক বৈঠকে স্বীকার করে নিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। তিনি জানান, “এ পর্যন্ত পাঞ্জাবে এমন ২৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন যাঁদের কোনও বেড়াতে যাওয়ার ইতিহাস নেই। এগুলিকে গোষ্ঠী সংক্রমণ বলা যেতেই পারে।” এদিকে এদিনই পাঞ্জাবে লকডাউন ১ মে পর্যন্ত বাড়ানো কথা ঘোষণা করা হয়। ইতিপূর্বে ওড়িশা লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির পথে হেঁটেছিল। ৩০ মে অবধি লকডাউন বাড়িয়েছেন নবীন পট্টনায়েক।

 [আরও পড়ুন : করোনা পরিস্থিতিতেও ভারত বিরোধিতার চেষ্টা, ইসলামাবাদকে সতর্ক করল দিল্লি]

এদিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাংবাদিক সম্মেলন করেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী। করোনা মোকাবিলায় রাজ্য কতটা তৈরি তার বিস্তারিত ব্যাখা দেন তিনি। বিস্তারিতভাবে করোনা পরিস্থিতির বর্ণনা দেন। অমরিন্দর সিং জানান, শুক্রবার পর্যন্ত রাজ্যে ১৩২ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। তাদের মধ্যে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি, দিল্লির তবলিঘি জামাতের অনুষ্ঠানে যোগদানকারী ও তাঁদের সংস্পর্শে আসা এ রাজ্যের ৬৫১ জনের খবর মিলেছে। তাঁদের মধ্যে ৬৩৬ জনকে চিহ্নিত করা গিয়েছে। তিনি আরও জানান, করোনা মোকাবিলায় চারদফা পরিকল্পনা তৈরি করেছে প্রশাসন। যথেষ্ট সংখ্যক ভেন্টিলেটার, পিপিই ও মাস্কের যোগান রয়েছে। আরও দুটি হাসপাতালকে চিকিৎসার জন্য তৈরি রাখা হচ্ছে। একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানান, ” কোভিড-১৯ এর একটা ভালদিক রাজ্য দেখেছে। করোনা সংক্রমণের জেরে রাজ্যে ড্রাগের চোরাচালান বন্ধ হয়েছে। আমরা খুশি।”

 [আরও পড়ুন : ভিন রাজ্যে আটকে ছেলে, ১৪০০ কিলোমিটার স্কুটি চালিয়ে ঘরে ফেরালেন মা]

প্রসঙ্গত, কেরলের পর পাঞ্জাবই একমাত্র রাজ্য, যারা প্রথম থেকে সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হেঁটেছে। লকডাউন কী বাড়ানো হবে? তার উত্তরে পাঞ্জাবে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, “এটা ফসল তোলার সময়। ১৫ এপ্রিল থেকে রাজ্যে গম তোলার কাজ শুরু হয়ে যাবে। লকডাউন শিথিল করা হলে তা হবে স্রেফ চাষীদের জন্য। তবে কবে অদভি লকডাউন বাড়ানো হবে, তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে মন্ত্রিসভা।” কিন্তু পরে মন্ত্রিসভার বৈঠকে লকডাউন বাড়ানোর কথা ঘোষণা করা হয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement