২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

লাদাখবাসীর সতর্কবার্তায় কান না দিলে ফল ভুগতে হবে, ভিডিও পোস্ট করে কটাক্ষ রাহুলের

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 4, 2020 12:03 pm|    Updated: July 4, 2020 12:05 pm

An Images

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: ফের লাদাখ ইস্যুতে সরব কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। চিনা আগ্রাসন নিয়ে লাদাখবাসীর মতামতকে গুরুত্ব দেওয়ার আবেদন জানালেন তিনি। শুক্রবারের পর শনিবারও লাদাখের (Ladakh) বাসিন্দাদের একটি ভিডিও পোস্ট করেন রাহুল। যেখানে তাঁরা চিনা আগ্রাসন নিয়ে অভিযোগ করছেন। একইসঙ্গে তিনি লিখেছেন, “লাদাখের দেশপ্রেমিক বাসিন্দাদের সতর্কবার্তা শুনুন। না হলে দেশকে তার ফল ভুগতে হবে”। 

ভারত-চিন লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত। ৪৫ বছর পর চিনা হামলায় শহিদ হয়েছেন ২০ ভারতীয় জওয়ান। যা নিয়ে গোটা দেশে ক্ষোভের পারদ চড়ছে। উত্তাল রাজনীতিও। এমন পরিস্থিতিতেই সেনা জওয়ানদের মনোবল বাড়াতে শুক্রবারই  লেহ (Leh) গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রেখেছেন। তারপরেই নাম না করে মোদিকে (Narendra Modi) ফের নিশানা করছেন রাহুল।

[আরও পড়ুন : দিল্লি হিংসায় বিতর্কিত ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েকের যোগ স্পষ্ট, রিপোর্টে জানাল পুলিশ]

এদিন এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তৈরি করা ভিডিও পোস্ট করেন রাহুল। উল্লেখ্যযোগ্য, সেই ভিডিওতে লাদাখের স্থানীয় এক বিজেপি নেতারও বক্তব্য আছে।  প্যাংগং লেক থেকে ৬০ কিমি দূরে অবস্থিত নোয়মা ব্লক ডেভলপমেন্ট কাউন্সিলের প্রধান হলেন উরগেন শোডন। বিজেপির টিকিটে এই কাউন্সিলের প্রধান হয়েছিলেন তিনি। ১৫ জুনের সংঘর্ষের অনেক আগে তিনি নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে চিনা সেনার কীর্তি পোস্ট করেছিলেন। কীভাবে ধীরে ধীরে ভারতীয় ভূখণ্ড দখল করছে লালফৌজ তা নিয়ে সতর্ক করেছিলেন তিনি। 

[আরও পড়ুন : আনলক ২-এ আরও ভয়ংকর করোনার দাপট, উদ্বেগ বাড়াল দেশের রেকর্ডভাঙা আক্রান্তের সংখ্যা]

অন্য একটি পোস্ট শোডন লেখেন, গ্রামবাসীদের পশু চরানোর কাজে বাধা দিচ্ছে চিনা ফৌজ। ২০১৫ সালেও এই বিষয়ে সোচ্চার হয়েছিলেন শোডন। গত এপ্রিলে তিনি ওই এলাকায় ৩০০-৩৫০ চিনা গাড়ি দেখেছিলেন। ফেসবুকেও সে কথা লিখেছিলেন। কিন্তু এই পোস্ট এলাকায় আতঙ্ক ছড়াচ্ছে বলে জানানো হয় তাঁকে। ফলে সেগুলি ডিলিট করতে বাধ্য হন শোডন। এ সমস্ত কথাই রাহুলের (Rahul Gandhi) পোস্ট করা ভিডিওতে রয়েছে।  সঙ্গে কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি লিখেছেন, লাদাখের দেশপ্রেমী বাসিন্দারা চিনা আগ্রাসন নিয়ে সরব হচ্ছেন। তাঁরা চিৎকার করে সতর্ক করা চেষ্টা করছেন। তাঁদের সতর্কবার্তাকে পাত্তা না দিলে ভারতকে ফল ভুগতে হবে। দেশের জন্য, তাঁদের কথা শুনুন।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement