১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনার অজুহাতে শ্রম আইনে পরিবর্তন বরদাস্ত নয়’, হুঁশিয়ারি রাহুল গান্ধীর

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 11, 2020 5:12 pm|    Updated: May 11, 2020 5:12 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের অজুহাতে শ্রমিক শ্রেণির অধিকারে হস্তক্ষেপ করা যাবে না। সোমবার রাজ্য সরকারগুলিতে হুঁশিয়ারি দিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ( Rahul Gandhi)। তাঁর অভিযোগ, করোনার অজুহাতে অনেক রাজ্য সরকার শ্রম আইনে পরিবর্তন করতে চাইছে। শ্রমিকদের ন্যূনতম অধিকারে হস্তক্ষেপ করতে চাইছে।

[আরও পড়ুন: শ্রমিকদের হেঁটে বাড়ি ফেরা বন্ধে উদ্যোগী কেন্দ্র, সহযোগিতা চেয়ে চিঠি রাজ্যগুলিকে]

করোনা আবহে আবারও দেশের বিরোধী শিবিরের মধ্যমণি হয়ে উঠেছেন রাহুল। প্রায় প্রতিদিনই নতুন নতুন ইস্যু তুলে সরকার পক্ষকে আক্রমণ শানাচ্ছেন তিনি। সোমবার প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে সরব হলেন। এক টুইট বার্তায় রাহুল বলছেন,” অনেক রাজ্য সরকার শ্রম আইনে পরিবর্তন আনতে চাইছে। করোনার বিরুদ্ধে এই লড়াইয়ে আমরা সবাই একজোট। কিন্তু এটা মানবাধিকার লঙ্ঘন, অসুরক্ষিত কর্মস্থল এবং শ্রমিকদের কণ্ঠস্বর দমনের অজুহাত হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে না।”

[আরও পড়ুন: PM CARES তহবিলের জমাখরচের হিসেব জনসমক্ষে আনতে হবে, দাবি রাহুলের]

বস্তুত, করোনা পরবর্তী সময়ে অর্থনীতিকে ফের সুদৃঢ় করতে একাধিক রাজ্য শ্রম আইনে পরিবর্তন আনার পরিকল্পনা করছে। এদের মধ্যে অগ্রণী বিজেপি শাসিত গুজরাট। এই রাজ্যগুলি শিল্পকারখানার মালিকদের উপর বোঝা কমাতে শ্রমিকদের সুরক্ষা এবং নিরাপত্তা সংক্রান্ত একাধিক গাইডলাইন শিথিল করার পক্ষে। প্রয়োজনে কাজের সময়ও বাড়ানো হতে পারে। যা শ্রম আইনের পরিপন্থী। কংগ্রেস দলগতভাবে এর বিরধিতা করছে। রাহুলের পাশাপাশি দলের আরেক শীর্ষনেতা জয়রাম রমেশও (Jairam Ramesh) এর প্রতিবাদ করেছেন। তিনি বলছেন, অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের নামে শ্রমিকদের বিপদ এবং বিপর্যয়ের মধ্যে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। এটাও নোট বাতিলের মতো দুঃসহ পদক্ষেপে পরিণত হতে পারে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement