৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘কোচ আডবানীর মুখে ঘুসি মেরেছেন বক্সার মোদি’, তীব্র কটাক্ষ রাহুলের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 6, 2019 6:12 pm|    Updated: May 6, 2019 6:12 pm

Rahul Gandhi takes a new jibe on PM Narendra Modi

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একজন বক্সার। কোচ আডবানীর মুখে পিছন থেকে ঘুসি মেরেছেন তিনি। আঘাত করছেন গড়কড়ি এবং জেটলির মতো নেতাদেরও। অভিযোগ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর। ভোটপ্রচারে রাহুল গিয়েছিলেন হরিয়ানার ভিওয়ানিতে। ঘটনাচক্রে ভিওয়ানি থেকেই ভারতের হয়ে অলিম্পিকে খেলেছেন চারজন বক্সার। তাই, ভোটপ্রচার বক্সারদের প্রসঙ্গ টানেন কংগ্রেস সভাপতি। তিনি বলেন,”২০১৪ সালে ভারত একজন নতুন বক্সার তৈরি করেছিল। বক্সিং রিংয়ে এসেছিলেন নরেন্দ্র মোদি। ৫৬ ইঞ্চি ছাতি এসেছিল বক্সিং রিংয়ে। তাঁর কাছে চ্যালেঞ্জ ছিল দারিদ্র, কৃষক সমস্যা এবং দুর্নীতি দূর করার।”

[আরও পড়ুনবারাণসীতে প্রার্থীপদ বাতিল, কমিশনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে তেজ বাহাদুর]

কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ” মোদিজির সামনে দর্শকাসনে ছিলেন এই দেশের জনগণ। রিংয়ে দর্শক হিসেবে ছিলেন কোচ আডবানী, ছিলেন নীতীন গড়করি এবং তাঁর পুরো টিম। মোদিজিকে গোটা দেশ বলল, ঠিক আছে এই বক্সার দারিদ্রের বিরুদ্ধে লড়াই করবে। কৃষক সমস্যার সমাধান করবে। এবং দুর্নীতি দূর করে প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা করে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করবে। তারপর বক্সার এলেন। সঙ্গে ছিল তাঁর বিপুল জনসমর্থন। প্রথম কাজ ওই বক্সার যেটা করল সেটা হল আডবানীজির দিকে তাকানো এবং তাঁকে ঘুসি মেরে দেওয়া। রীতিমতো চমকে গেলেন আডবানীজি। তারপর একে একে আডবানীজির গোটা টিমটাকেই পদানত করে গেলেন ওই বক্সার। তিনি একে একে জেটলিজি, গড়করিজি সবাইকে ঘুসি মারলেন ধাড়-ধাড়- ধাড়…।” রাহুলের এই রসিকতায় ততক্ষণে হাসিতে ফেটে পড়েছেন সমবেত জনতা।

[আরও পড়ুন: উচ্ছ্বাসহীন গণতন্ত্রের উৎসব, ভোটবিমুখ পুলওয়ামা হামলাকারী আদিলের এলাকা]

হরিয়ানার মাটিতে বক্সার এবং কুস্তিগিরদের আলাদা সম্মান দেওয়া হয়। তাই সেরাজ্যে গিয়ে বক্সারদের প্রসঙ্গ টানলেন রাহুল। কিন্তু আডবানী-জেটলিদের হঠাৎ টানতে গেলেন কেন? আসলে দিন দুই আগেই নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন মায়াবতীকে পিছন থেকে ছুরি মারছে সপা এবং কংগ্রেসের জোট। পুরদস্তুর বিরোধী শিবিরে বিভাজন তৈরি করেছিলেন মোদি। এদিন রাহুলও তাই বিজেপির ঘরের বিবাদ উসকে দেওয়ার চেষ্টা করলেন বলেই মত রাজনৈতিক মহলের। উল্লেখ্য, সোমবারই ভোট হচ্ছে কংগ্রেস সভাপতির নিজের কেন্দ্র আমেঠিতে। ভোটের দিন রাহুলের আমেঠিতে যাওয়ার কথা থাকলেও শেষপর্যন্ত তা সেই সফর বাতিল করেন কংগ্রেস সভাপতি। যা নিয়ে তাঁকে তীব্র আক্রমণ শানান বিপক্ষের প্রার্থী স্মৃতি ইরানি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে