BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভারতীয় গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার অস্ত্র পেগাসাস, সুপ্রিম রায়কে হাতিয়ার করে তোপ রাহুলের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 27, 2021 8:31 pm|    Updated: October 27, 2021 8:31 pm

Rahul Gandhi welcomed the Supreme Court's order to form committee on Pegasus spyware row | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পেগাসাস ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court) কেন্দ্রকে তিরস্কার করতেই একযোগে আসরে নেমে পড়ল বিরোধীরা। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী সাংবাদিক বৈঠক করে দাবি করলেন, তাঁরা এতদিন ধরে যা বলছিলেন, সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণে সেটাই প্রমাণিত হল। এবার সংসদেও এ নিয়ে বিতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

বুধবার পেগাসাস মামলার রায় প্রসঙ্গে রাহুল গান্ধী বলেন,”পেগাসাস ভারতীয় গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার চেষ্টা। পেগাসাস (Pegasus) এই দেশের উপর আক্রমণ, এই দেশের স্বশাসিত সংস্থাগুলির উপর আক্রমণ।আমি নিশ্চিত সুপ্রিম কোর্টের কমিটি সত্যিটা বের করে আনবে।” কংগ্রেস সাংসদ দাবি করেছেন, “এতদিন সংসদে আমরা তদন্তের দাবি করেছিলাম। আমরা প্রতিবাদ করেছি। আমরা সংসদ স্তব্ধ করে দিয়েছি। কিন্তু কোনও জবাব মেলেনি। এবার আমাদের অভিযোগই সত্যি হল। আমাদের প্রশ্ন থাকছেই।”

Rahul Gandhi welcomed the Supreme Court's order to form committee on Pegasus spyware row

[আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় অভিষেকের সভার আগেই বিজেপিতে বড় ধাক্কা, তৃণমূলে যোগ আদিবাসী নেতার]

রাহুল গান্ধী এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, সংসদের অধিবেশন শুরু হলে তাঁরা ফের এ বিষয়ে সংসদে আলোচনা চাইবেন। সংসদের বাদল অধিবেশনে বিরোধীরা পেগাসাস নিয়ে আলোচনা চেয়ে লাগাতার বিক্ষোভ দেখিয়ে এসেছে। যার জেরে সংসদ অচলও হয়েছে। রাহুলের (Rahul Gandhi) কথায় ইঙ্গিত আসন্ন শীতকালীন অধিবেশনেও একইভাবে উত্তাল হতে পারে সংসদ। যদিও তৃণমূলের দাবি, সংসদের সেই অচলাবস্থার জন্য কোনওভাবেই তৃণমূল দায়ী নয়। সুপ্রিম রায় প্রকাশ্যে আসার পরই ডেরেক ও ব্রায়েন টুইট করে বলেন,”এই রায়েই প্রমাণিত সংসদের অচলাবস্থার জন্য বিরোধীরা নয়, বিজেপিই (BJP) দায়ী।”

[আরও পড়ুন: জগদীপ ধনকড়কে দেখতে দিল্লির AIIMS-এ অমিত শাহ, কেমন আছেন রাজ্যপাল?]

প্রসঙ্গত, বুধবারই ফোনে আড়ি পাতা তথা পেগাসাস কাণ্ডের নিরপেক্ষ তদন্তের জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে সুপ্রিম কোর্ট। একইসঙ্গে কেন্দ্রের ভূমিকা নিয়েও অসন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধান বিচারপতি। প্রধান বিচারপতি বলেন, “কেন্দ্রকে জবাব দেওয়ার জন্য যথেষ্ট সময় দেওয়া হয়েছে। তবে তা সত্ত্বেও জবাব দেয়নি কেন্দ্র। ব্যক্তি গোপনীয়তার অধিকার রক্ষার বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জাতীয় নিরাপত্তার (National Security) দোহাই দিয়ে সরকার যা খুশি করতে পারে না। এই ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে কেন্দ্রের আরও সতর্ক থাকা উচিত।” সঙ্গে যোগ করেন, “শুধুমাত্র সাংবাদিক নয়, সমস্ত নাগরিকের গোপনীয়তা রক্ষা গুরুত্বপূর্ণ। বেশ কয়েকজন আবেদনকারী সরাসরি পেগাসাসের শিকার হয়েছেন।” জর্জ অরওয়েলের উক্তি তুলে ধরে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘গোপন রাখতে চাইলে নিজেদের থেকেও গোপন রাখা উচিত’।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে