১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৪ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘অগ্নিপথ’ তাণ্ডবে রেলের ক্ষতি ২৫৯ কোটি টাকা, জানালেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: July 22, 2022 5:10 pm|    Updated: July 22, 2022 5:10 pm

Railways incur loses to the tune of Rs 259 crore due to Agnipath protests | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্প্রতি কেন্দ্রের ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা দেশ। একের পর এক ট্রেনে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। ফলে বাতিল করতে হয় বহু ট্রেন। ওই তাণ্ডবে রেলের ক্ষতি হয়েছে ২৫৯ কোটি টাকা। বুধবার লোকসভায় এমনটাই জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব।

গত সোমবার থেকে শুরু হয়েছে সংসদের বাদল অধিবেশন। বুধবার লোকসভায় লিখিত জবাবে রেলমন্ত্রী জানান, বিগত দিনে ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্প ঘিরে প্রতিবাদে প্রাণ হারান দু’জন। আহত হয়েছেন ৩৫ জন। ২ হাজার ৬৪২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। দেশজুড়ে চলা এই বিক্ষোভের জেরে রেলের ক্ষতি হয়ছে ২৫৯.৪৪ কোটি টাকার। তিনি আরও জানান, সম্পত্তি নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি বহু ট্রেন যাত্রা বাতিল করতে বাধ্য হয়। রেলমন্ত্রী বলেন, “১৪ থেকে ৩০ জুনের মধ্যে ট্রেন বাতিল হওয়ায় টিকিটের মূল্য বাবদ যাত্রীদের ১০২.৯৬ কোটি টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: ভরা বাজারে নমাজ পাঠ, হরিদ্বারে গ্রেপ্তার ৮]

গত জুন মাসে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে নিয়োগের জন্য ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্প চালু করে মোদি সরকার। যা নিয়ে চরম বিক্ষোভের সাক্ষী হয় গোটা দেশ। কারণ, ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পে মাত্র চার বছরের জন্য সেনায় কাজ করার সুযোগ মিলবে। তবে অবসরের পর এককালীন ভাতা মিললেও পেনশনের কোনও সুবিধা পাওয়া যাবে না। আর এতেই তুমুল আপত্তি জানায় সেনায় চাকুরিপ্রার্থীরা। বিশেষ করে, বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ ও উত্তরপ্রদেশ বেলাগাম বিক্ষোভের সাক্ষী থাকে। বাদল অধিবেশনে লোকসভায় সেই প্রসঙ্গে রেলমন্ত্রী জানান, বিক্ষোভের জেরে আগেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রেল। ২০১৯-২০ সালে বিক্ষোভ ও ধর্মঘটের জেরে ১৫১ কোটি টাকা। ২০২০-২১ সালে রেলের ক্ষতি হয় ৯০৪ কোটি টাকা।

উল্লেখ্য, সেনাবাহিনীর (Indian Army) লোকবল অক্ষুন্ন রেখে আধুনিকীকরণের স্বার্থে কেন্দ্রের নতুন প্রকল্প অগ্নিপথ। এর মাধ্যমে সেনায় অস্থায়ীভাবে ৪ বছরের জন্য কর্মী নিয়োগ হবে। যাদের পোশাকি নাম ‘অগ্নিবীর’। কিন্তু কেন্দ্রের ঘোষিত এই অগ্নিপথ (Agnipath Scheme) প্রকল্প দেশজুড়ে সেনায় চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এভাবে অস্থায়ী পদে নিয়োগ নিয়ে চাকরিপ্রার্থীরা অসন্তুষ্ট। কেন্দ্রের দাবি, এভাবে সেনায় নিয়োগ হলে বেতন এবং পেনশন বাবদ কেন্দ্রের বহু অর্থ সাশ্রয় হবে। সেই টাকা সেনার প্রযুক্তির উন্নতির কাজে লাগানোর ভাবনা রয়েছে প্রতিরক্ষামন্ত্রকের। কেনা হবে আরও আধুনিক অস্ত্রশস্ত্র।

[আরও পড়ুন: বোর্ডের পরীক্ষায় ৫০০-তে ৫০০! তাক লাগিয়ে সিবিএসই দ্বাদশে প্রথম বুলন্দশহরের তানিয়া]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে