১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কাঁধে শহিদের কফিন, জওয়ানদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপন রাজনাথ সিংয়ের

Published by: Tanujit Das |    Posted: February 15, 2019 4:58 pm|    Updated: February 15, 2019 5:05 pm

 Rajnath Singh lend a shoulder to martyred CRPF soldier

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামার জঙ্গি হানায় শহিদ জওয়ানদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং৷ সরকারি প্রোটোকলের তোয়াক্কা না করে, তিনি কাঁধে তুলে নিলেন এক শহিদ জওয়ানের কফিন৷ তাঁদের মরদেহের সামনে দাঁড়িয়ে সেনাবাহিনী ও রাজনাথ সিং শপথ নিলেন, ‘এই বলিদান বিফলে যাবে না৷ শত্রুদের উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে৷’

[জঙ্গি মোকাবিলায় সরকারের পাশে বিরোধীরা, কেন্দ্রকে সমর্থন কংগ্রেসের]

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে মন্ত্রিসভার সুরক্ষা বিষয়ক কমিটির বৈঠক সেরে পুলওয়ামায় উড়ে যান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷ তাঁর সঙ্গে ছিলেন স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীব গওবা৷ পুলওয়ামায় পৌঁছেই বদগামের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তাঁরা৷ সেখানকার সেনা ক্যাম্পেই তখন শায়িত ছিল ৪৯ জন শহিদের কফিনবন্দি দেহ৷ সেখানেই শহিদ জওয়ানদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক ও সেনার নর্দান কম্যান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিং৷ সমস্বরে তাঁরা বলে ওঠেন, ‘বীর জওয়ান অমর রহে’৷ প্রতিশোধের বার্তা দিয়ে সিআরপিএফের তরফেও জানান হয়েছে, ‘ভাইদের রক্ত বিফলে যাবে না৷’

এরপরই শ্রীনগরের বিশেষ বৈঠকে বসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক৷ বৈঠকে সেনার তরফে উপস্থিত রয়েছেন বিএসএফ, সিআরপিএফ ও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্তারা৷ সূত্রের খবর, এই বৈঠকে সমগ্র পরিস্থিতির খোঁজ নেন রাজনাথ৷ কেন এত বড় ঘটনা ঘটল? কোথায় ফাঁক ছিল? কীভাবে পালটা জবাব দেওয়া যায়? এই সমস্ত বিষয়ে আলোচনার সম্ভাবনা রয়েছে উক্ত বৈঠকে৷  

[‘দেশরক্ষায় অন্য সন্তানকেও উৎসর্গ করব’, শপথ শহিদের বাবার ]

পুলওয়ামার হামলার প্রতিবাদে ক্ষোভ ফুটছে গোটা দেশ৷ বৃহস্পতিবার থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয়ে গিয়েছে প্রতিবাদ মিছিল৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে #IndiaWantsRevenge৷ শুক্রবার সকালেও দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন দেশবাসী৷ বিক্ষোভ শুরু হয়েছে জম্মুর একাধিক স্থানেও৷ কাঠুয়াতে প্রতিবাদে বসেছেন সেখানকার নাগরিকরা৷ একই চিত্র দেখা দিয়েছে ঝাড়খণ্ডে৷ এমনকী, নয়াদিল্লিতে পাক হাই কমিশনের সামনেও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন অনেকে৷ কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে পাক হাই কমিশন৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে