BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর ‘‌পিতৃপক্ষ’‌ শেষ হলেই শুরু হবে রাম মন্দির তৈরির কাজ, জানাল ট্রাস্ট

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 7, 2020 9:19 am|    Updated: September 7, 2020 9:28 am

An Images

এই আদলেই তৈরি হবে মন্দির

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ সম্প্রতি করোনা আবহেই অযোধ্যায় (Ayodhya) সম্পন্ন হয়েছে ঐতিহাসিক রাম মন্দিরের (Ram Temple) ভূমিপুজো। ওই ভূমিপুজোর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। তাঁর হাত দিয়েই হয় ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান। তবে ভূমিপুজোর পর থেকেই একটাই প্রশ্ন হয়তো ঘুরছিল সবার মনে, কবে শুরু রাম মন্দির নির্মাণের কাজ? জানা গিয়েছে, আগামী ১৭ সেপ্টেম্বরের পর শুরু হবে সেই কাজ। 

এই  প্রসঙ্গে রাম মন্দির তীর্থক্ষেত্রের জেনারেল সেক্রেটারি চম্পত রাই জানালেন, শাস্ত্র অনুযায়ী পিতৃপক্ষের সময় নিজেদের পূর্ব পুরুষদের উদ্দেশে তর্পণ করা হয়, তাই সেই সময়টা কোনও শুভ কাজ করা হয় না। আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর শেষ হচ্ছে পিতৃপক্ষ এবং শুরু হবে দেবীপক্ষ। আর তাই তারপরই অযোধ্যায় শুরু হবে রাম মন্দিরের কাজ।

[আরও পড়ুন:‌ কাশ্মীরে ফের খোঁজ মিলল লুকনো অস্ত্রভাণ্ডারের, নদী থেকে উদ্ধার ২ জঙ্গির দেহ]

জানা গিয়েছে, দেশের দুটি সংস্থা সম্পূর্ণ বিনা খরচে রাম মন্দির নির্মাণ করে দেবে। নির্দিষ্ট অঞ্চলে মন্দির তৈরির আগে মোট ১২০০ পাথর বসানো হবে। এজন্য মুম্বই (Mumbai) ও হায়দরাবাদ (Hyderabad) থেকে একাধিক মেশিনও আনা হয়েছে। মন্দির কর্তৃপক্ষের তরফে আগেই জানা গিয়েছিল, যে রাম মন্দির তৈরি হবে, তার আয়ুকাল থাকবে কমপক্ষে ১ হাজার বছর! শুধু তাই নয়, আগামী তিন বছরের মধ্যেই সম্পূর্ণ তৈরি হয়ে যাবে বহু প্রতিক্ষিত রাম মন্দির নির্মাণের কাজ। তবে, মন্দির তৈরিতে কোনও লোহার ব্যবহার করা হবে না। তার বদলে ব্যবহৃত হবে ১০ হাজার তামার রডের। ইতিমধ্যে তামার রড দিয়ে সাহায্যের আর্জিও জানিয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন:‌ লকডাউনে বাতিল বিমানের টিকিটের পুরো টাকা ফেরাতে হবে সংস্থাগুলিকে, সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্র]

জানা গিয়েছে, মন্দির নির্মাণের আগে ভালো করে পরীক্ষা করা মাটি। সেই মাটি পরীক্ষা করে দেখবেন চেন্নাই IIT’‌র বিশেষজ্ঞরা। আর মন্দির নির্মাণে যুক্ত থাকবে সেন্ট্রাল বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট। তবে গোটা বিষয়টির তত্ত্বাবধান করবে বিখ্যাত সংস্থা লারসেন অ্যান্ড টুবরো (Larsen and Toubro)। কয়েকদিন আগেই রাম মন্দিরের নকশাও প্রকাশ্যে আনা হয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement