১২  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

একাধিক ত্রুটি, আপাতত মিলবে না এই ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 3, 2020 5:27 pm|    Updated: December 3, 2020 5:53 pm

Bengali news: RBI Halts HDFC Bank's Digital Activities & Sourcing New Credit Card Customers After Multiple Failures | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপাতত কিছুদিন নতুন ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করতে পারবে না এইচডিএফসি (HDFC) ব্যাংক। এমনই নির্দেশ দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (RBI)। পাশাপাশি গ্রাহকদের নতুন কোনও ডিজিটাল পরিষেবা দিতেও পারবে না। এদিকে বৃহস্পতিবার এসবিআই ব্যাংকের অ্যাপ ইওনো (YONO) নিয়ে সমস্যা পড়েন গ্রাহকরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ক্ষোভ উগরে দেন গ্রাহকরা।

কিন্তু কেন এমন নির্দেশ দিল আরবিআই? গত দু’বছর ধরে ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, মোবাইল ব্যাংকিং ইত্যাদি ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত যান্ত্রিক গোলযোগের দেখা দিচ্ছিল। গ্রাহকরা এ নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছিল। তারই প্রেক্ষিতে নির্দেশ দিল রিজার্ভ ব্যাংক। জানিয়েছে, পরবর্তী নির্দেশিকা না আসা পর্যন্ত গ্রাহকদের ক্রেডিট কার্ড পরিষেবা দিতে পারবে না এইচডিএফসি।

[আরও পড়ুন: আর্থিক দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগ, দেশজুড়ে PFI-এর বিভিন্ন নেতার বাড়িতে তল্লাশি ইডির]

উল্লেখ্য, গত ২১ নভেম্বর ডিজিটাল লেনদেনের (Digital Banking) সময় চূড়ান্ত সমস্যায় পড়েন এইচডিএফসির গ্রাহকরা। হঠাৎ ডিজিটাল লেনদেন স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল কিছুক্ষণের জন্য। সেই সময় সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, ব্যাংকের প্রাইমারি ডেটা সেন্টারে যান্ত্রিক গোলযোগ হয়। তার জেরেই এই সমস্যা হয়েছিল। এরপরই আরবিআই নয়া নির্দেশিকা জারি করল। তবে এই নির্দেশিকায় ব্যাংকের ব্যবসায় কোনও প্রভাব পড়বে না বলেই জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, আপাতত ডিজিটাল ২.০-এর আওতায় নেওয়া সমস্ত ডিজিটাল ব্যবসায়িক পরিষেবার বাস্তবায়ন করা যাবে না। এইচডিএফসি কর্তৃপক্ষকে নজর দিতে হবে, যাতে উপভোক্তারা কোনও অসুবিধায় না পড়েন। পরিষেবা যেন ‘টেকনিক্যালি সাউন্ড’ থাকে, এটাও দেখতে হবে। আরবিআই সূত্রে খবর, ক্রেতাসুরক্ষার কথা মাথায় রেখে এ বার পরিষেবা পরিস্থিতি নিজেরাই খতিয়ে দেখবে তারা। তবে এ জন্য পুরনো গ্রাহকরা কোনও অসুবিধায় পড়বেন না। তাই আপাতত এই এইচডিএফসির ক্রেডিট কার্ড নেওয়ার পরিকল্পনা থাকলে তা ত্যাগ করতে হবে। এর ফলে প্রতিযোগী ব্যাংকগুলি বেশকিছুটা সুবিধা পেয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা। 

[আরও পড়ুন: কৃষকদের প্রতি ‘বঞ্চনা’র প্রতিবাদ, পদ্মবিভূষণ ফেরালেন অকালি নেতা প্রকাশ সিং বাদল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে