BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘৫ আগস্ট পর্যন্ত দিনে পাঁচবার হনুমান চালিশা পাঠ করুন’, করোনা তাড়াতে দাওয়াই প্রজ্ঞার

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 26, 2020 9:20 am|    Updated: July 26, 2020 9:20 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Coronavirus) আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। ভ্যাকসিনের আশায় দিন গুনছেন সকলেই। তবে এই পরিস্থিতিতেও ভ্যাকসিন নয়, ভাইরাস তাড়াতে ‘হনুমান চালিশা’ পাঠের উপরেই ভরসা রাখলেন বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর। তাঁর দাওয়াই, দিনে পাঁচবার হনুমান চালিশা পাঠ করলেই দেশে কমবে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র অথচ দাপুটে ভাইরাসের প্রকোপ। যদিও তাঁর মন্তব্য নিয়ে অনেকেই হাসিঠাট্টা শুরু করেছেন।

শনিবার একটি ভিডিও বার্তা টুইট করেন প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর (Pragya Singh Thakur)। তিনি বলেন, “আসুন, আমরা সকলে মিলে সবার সুস্বাস্থ্যের জন্য এবং করোন ভাইরাসকে শেষ করার জন্য আধ্যাত্মিক প্রচেষ্টা করি। করোনা ভাইরাসকে ভয় পাবেন না। দিনের মধ্যে পাঁচ বার ‘হনুমান চালিশা’ পাঠ করুন। ৫ আগস্ট পর্যন্ত এটা চালিয়ে যান। ৫ আগস্ট বাড়িতেই প্রদীপ জ্বালিয়ে ভগবান রামকে আরতি দিয়ে আচারটি শেষ করুন। দিওয়ালির মতো করেই ওই দিনটি পালন করবেন। তাতেই গোটা পৃথিবী করোনামুক্ত হবে।” এছাড়াও বিজেপি সাংসদের বিশ্বাস, “গোটা দেশের হিন্দুরা যখন একসঙ্গে ‘হনুমান চালিশা’ পাঠ করবেন, নিশ্চিতভাবেই সেটা কাজ করবে। আমরা করোনামুক্ত হব। ভগবান রামের কাছে এটা আপনার প্রর্থনা।”

[আরও পড়ুন: দমবন্ধ হয়ে মৃত ৫০টি গরু, কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর]

কিন্তু ৫ আগস্ট পর্যন্তই কেন ‘হনুমান চালিশা’ পাঠের কথা বললেন প্রজ্ঞা? কারণ, শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী ৫ আগস্টেই অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজো রয়েছে। শিলান্যাস করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। দিনকয়েক আগেই বিজেপির প্রবীণ এক নেতা দাবি করেছিলেন, “অযোধ্যায় একবার রাম মন্দির নির্মাণকাজ শুরু হতে দিন। আমার বিশ্বাস, রামচন্দ্র তুষ্ট হয়ে বধ করবেন করোনাকে।” অনেকেই বলছেন, সে পথে হেঁটেই ৫ আগস্ট পর্যন্ত ‘হনুমান চালিশা’ পাঠের দাওয়াই দিলেন প্রজ্ঞা।

এর আগে একাধিক বিজেপি নেতা করোনার দাওয়াই নিয়ে নানা মন্তব্য করেছেন। ‘ভাবিজি পাঁপড়’ খাওয়ার কথাও বলা হয়েছে। তারপরই প্রজ্ঞার ‘হনুমান চালিশা’ পাঠের দাওয়াই। তাঁর মন্তব্য নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। হাসির রোলও উঠেছে অনেক জায়গায়।

[আরও পড়ুন: বিজেপির হাত থেকে গণতন্ত্র ও সংবিধানকে বাঁচাতে দেশজুড়ে আন্দোলনের ডাক কংগ্রেসের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement