BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আলমারি ভরতি রাশি রাশি টাকা! আয়কর সংস্থার হানায় উদ্ধার ‘গুপ্তধন’ ঘিরে চাঞ্চল্য

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 17, 2021 6:23 pm|    Updated: October 17, 2021 6:23 pm

Rs 550 crore unaccounted income traced by IT। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: থরে থরে সাজানো আলমারি ভরতি টাকা! সাধারণত যেমনটা কোনও সিনেমার দৃশ্য দেখতে অভ্যস্ত সবাই। কিন্তু এই দৃশ্য কোনও সিনেমার নয়। হায়দরাবাদের (Hyderabad) এক ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থায় আয়কর হানার (IT raid) পরেই খোঁজ মেলে ওই গোপন আলমারির। নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে এই ছবিটি। চক্ষু চড়কগাছ নেটিজেনদের।

মোট কত টাকা রয়েছে ওই আলমারিতে? এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, হায়দরাবাদের ওই সংস্থায় আয়কর দপ্তরের হানায় মোট ১৪২ কোটি টাকা উদ্ধার হয়েছে। অভিযোগ, উদ্ধার হওয়া ওই টাকার বেশির ভাগই এসেছিল বিদেশ থেকে। দুবাই, ইউরোপ, আমেরিকা, আফ্রিকার নানা দেশ থেকে সেগুলি এসেছে।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে ফের জঙ্গি নিশানায় আমজনতা, নিহত ফুচকা বিক্রেতা, উদ্ধার নিখোঁজ ২ জওয়ানের দেহ]

গত ১২ অক্টোবর একাধিক রাজ্যে তল্লাশি চালায় আয়কর দপ্তর। ৬টি রাজ্যের ৫০টি জায়গায় হানা দেন আয়কর আধিকারিকরা। তখনই এই ওষুধ সংস্থার লুকনো টাকার সন্ধান মেলে। সব মিলিয়ে হিসেব বহির্ভূত প্রায় ৫৫০ কোটি টাকার সন্ধান মিলেছে। আগে থেকেই ওই সংস্থার অ্যাকাউন্টগুলি খতিয়ে দেখছিলেন আয়কর কর্তারা। এরপরই ওই ব্যক্তিগত লকারের সন্ধান মেলে। আর তা খোলার পর কার্যত হকচকিয়ে যান তাঁরা। চোখের সামনে ভেসে ওঠে আলমারি ভরতি থরে থরে সাজানো ৫০০ টাকার নোট!

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ওই সংস্থা করোনার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ রেমডেসিভিরের উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। ঘটনাস্থল থেকে বহু পেন ড্রাইভ উদ্ধার করা হয়েছে। পুরো বিষয়টিই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। দেখা গিয়েছে, সংস্থার কর্তারা ভাইজাগ-সহ নানা স্থানে জমি কিনে রেখেছিলেন। সেই সব জমির কাগজপত্র খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বেআইনি টাকা আর কোথায় কোথায় বিনিয়োগ করা হয়েছে তাও খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: Singhu Lynching: ধর্মগ্রন্থের অবমাননা করাতেই হাত-পা কেটে খুন, লখবীর হত্যা মামলায় ধৃত বেড়ে ৪]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে