BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে বন্ধ সেলুন, বাবার দাড়ি ছেঁটে ভিডিও পোস্ট করলেন মন্ত্রীর ছেলে

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 12, 2020 6:31 pm|    Updated: April 12, 2020 6:31 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংক্রমণ এড়াতে দেশজুড়ে লকডাউন চলছে। ফলে জরুরি পরিষেবা ছাড়া আর সবকিছুই বন্ধ। চার দেওয়ালের ভিতরেই সময় কাটছে দেশবাসীর। তবে এই সময়ে শক্ত হচ্ছে পারিবারিক বন্ধন। রবিবার তেমনই এক মন ছুঁয়ে যাওয়া ভিডিও পোস্ট করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাম বিলাস পাসোয়ানের ছেলে চিরাগ পাসোয়ান। যেখানে দেখা যাচ্ছে, চিরাগ তাঁর বাবার দাড়ি কেটে দিচ্ছেন। টুইটটি একঘণ্টার মধ্যে প্রায় এক হাজার বার রিটুইট করা হয়েছে।

করোনার গ্রাসে গোটা বিশ্ব। ক্রমশ আয়ত্তের বাইরে চলে যাচ্ছে পরিস্থিতি। ইটালি ছাড়িয়ে মারণ জীবাণুর ভরকেন্দ্র এখন আমেরিকা। মার্কিন মুলুকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৯২০ জনের। গোটা দুনিয়ায় মৃতের সংখ্যা এক লক্ষ ছাপিয়ে গিয়েছে। মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে একাধিক দেশ। বিশ্বে আক্রান্ত প্রায় ১৭ লক্ষ মানুষ। ভারতেও দাপট দেখাচ্ছে মারণ ভাইরাস। দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭৩। মোট আক্রান্ত ৮,৩৫৬। সেরে উঠেছেন ৭১৬ জন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দেশজুড়ে ২১ দিনের লকডাউনের ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। বেশকিছু রাজ্যে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। ফলে জরুরি পরিষেবা ছাড়া বাকি সবই বন্ধ। ঝাঁপ ফেলেছে সেলুনগুলোও। ফলে চুল-দাঁড়ি নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন পুরুষরা।

ram-vilas

[আরও পড়ুন : ‘লকডাউনে কারখানা এবং রাস্তার কাজে আংশিক ছাড় দিন’, মোদিকে পরামর্শ একাধিক মন্ত্রীর]

এদিন বাবা রামবিলাস পাসোয়ানের সেই মুশকিল আসান করেছেন  ছেলে চিরাগই। রবিবার বাড়িতে ট্রিমার দিয়ে বাবার দাড়ি-গোঁফ ছেঁটে দিয়েছেন তিনি। মজা করে গোটা ভিডিওটি টুইটারে পোস্টও করেছেন। সঙ্গে লেখেন, “কঠিন সময়। তবে এই সময়ের একটা ভালদিকও আছে। আমার এই গুণ সম্পর্কে নিজেরই জানা ছিল না। চলুন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করি সঙ্গে সুন্দর কিছু স্মৃতি তৈরি করি।” একই সঙ্গে লোক জনশক্তি দলের সাংসদ দেশবাসীকে ঘরে থাকার আবেদনও জানিয়েছেন।

[আরও পড়ুন :‘মাস্ক না পরলেই নগদ ৫ হাজার টাকা জরিমানা’, সংক্রমণ রুখতে নয়া নিদান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement