Advertisement
Advertisement

Breaking News

Supreme court

রাজনৈতিক হিংসায় ভিন রাজ্যে আশ্রিত ব্যক্তিদের জন্য কী ব্যবস্থা? রাজ্যকে ‘সুপ্রিম’ নোটিস

ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসার তদন্তে SIT গঠন নিয়েও রাজ্যের মতামত জানতে চায় শীর্ষ আদালত।

SC serves notice to West Bengal govt on post-poll violence | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 25, 2021 1:59 pm
  • Updated:May 25, 2021 2:50 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসার (Post poll violence) জেরে পশ্চিমবঙ্গ থেকে যাঁরা ভিনরাজ্যে পালিয়ে গিয়েছেন, তাঁদের সাহায্যের ব্যবস্থা করা হোক। এ নিয়ে কী ভাবছে রাজ্য সরকার, তা জানতে চেয়ে নোটিস পাঠাল শীর্ষ আদালত (Supreme Court)। রাজনৈতিক হিংসায় মৃত্যুর তদন্তে SIT গঠনের আবেদন জানিয়ে আগে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় নিহতদের পরিবার। তার ভিত্তিতে রাজ্যের মতামত জানতে চেয়ে আগেও একবার নোটিস পাঠানো হয়েছিল। মঙ্গলবার নতুন করে নোটিস জারি হল। এই সব কিছু শীর্ষ আদালতে হলফনামা আকারে জমা দিতে হবে রাজ্য সরকারকে। ৭ জুন মামলার পরবর্তী শুনানি।

রাজ্যে ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক অশান্তি এখনও চর্চার বিষয় সংশ্লিষ্ট মহলে। দেশের শীর্ষ আদালতেও পৌঁছে গিয়েছে এর রেশ। সরকারি হিসেব অনুযায়ী, ভোটের ফলপ্রকাশের পর থেকে রাজ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন প্রায় ১৬ জন। এঁদের মধ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সদস্যরা রয়েছেন। হিংসায় নিহত ২ বিজেপি কর্মীর পরিবারের তরফে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়, রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থাকে দিয়ে নয়, এসব ঘটনার জন্য আলাদা করে বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট তৈরি করা হোক। এ নিয়ে রাজ্যকে ইতিমধ্যেই নোটিস পাঠিয়েছে শীর্ষ আদালত। এছাড়া তাঁদের অভিযোগ অনুযায়ী, ভোটের পর অশান্তি, হামলার আশঙ্কায় প্রতিবেশী রাজ্যগুলিতেও গা ঢাকা দিতে বাধ্য হয়েছেন একাধিক রাজনৈতিক দলের কর্মীরা। অসমের (Assam) ধুবড়িতে বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী পালিয়ে গিয়েছেন। তাঁদের সঙ্গে গিয়ে দেখা করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ও। এ নিয়ে এবার পদক্ষেপ নিল সুপ্রিম কোর্টও।

[আরও পড়ুন: দেশের করোনা পরিসংখ্যানে বড় স্বস্তি, দীর্ঘদিন বাদে দৈনিক আক্রান্ত ২ লক্ষের নিচে]

মঙ্গলবার দেশের শীর্ষ আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, অন্তত মানবিকতার খাতিরে রাজ্য ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়া বাসিন্দাদের জন্য ব্যবস্থা করুক সরকার। তবে এ বিষয়ে রাজ্য সরকারের কী ভাবনা, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। আগামী ৭ তারিখের মধ্যে রাজ্যের থেকে হলফনামা চাওয়া হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ