BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দিনের শুরুতেই ধস শেয়ার বাজারে, ২৫০ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 19, 2019 11:17 am|    Updated: September 19, 2019 11:19 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিনের শুরুতেই ধস নামল শেয়ার বাজারে। বৃহস্পতিবার বাজার খুলতেই ২৫০ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স। নিম্নমুখী গতি নিফটিরও। বিদেশি বিনোযোগকারীদের অনীহা ও বিশ্ববাজের তেলের  মূল্যবৃদ্ধির জেরে মেঘ জমেছে দালাল স্ট্রিটে।

[আরও পড়ুন: দেউচা-পাচামির উদ্বোধন করতে আসুন, প্রধানমন্ত্রীকে রাজ্যে আমন্ত্রণ মুখ্যমন্ত্রীর]

এদিন বাজার খুলতেই ২৫০ পয়েন্ট পড়ে সেনসেক্স দাঁড়িয়েছে ৩৬, ৩১২ পয়েন্টে। পাশাপাশি নিফটি ১০, ৮০০ পয়েন্টের নিচে নেমে গিয়েছে। বিশ্লেষকদের মতে, শেয়ার বাজের ধসের নেপথ্যে রয়েছে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের মূল্যবৃদ্ধি ও বিদেশি বিনিয়োগকারীদের অনীহা। দেশের অর্থনীতিতে চলা ডামাডোল ও আর্থিক মন্দার আগাম সতর্কতায় বিনিয়োগ করতে চাইছেন না বিদেশি লগ্নিকারীরা। একইসঙ্গে সমস্যা আরও বাড়িয়ে নিজেদের ভারতীয় ইকুয়িটি বেঁচে দিচ্ছেন তাঁর।  গতকাল, অর্থাৎ বুধবার প্রায় ৯৫৯ কোটি টাকা মূল্যের ভারতীয় কোম্পানিগুলির শেয়ার বিক্র করে দিয়েছেন বিদেশি লগ্নিকারীরা।

শেয়ার বাজারে চলা ডামাডোলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, আইসিআইসিআই ও ইয়েস ব্যাংক। এছাড়াও ধাক্কা খেছে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা টিসিএস, টেক মহিন্দ্রা ও এইচসিএল-য়ের শেয়ারও। মোতিলাল ওসওয়াল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস-এর শীর্ষ কর্তা বলেন, মধ্যেপ্রাচ্যে চলা চাপানউতোরের প্রভাব পড়বে ভারতীয় শেয়ার বাজারে। ফলে আগামী দিনে আন্তর্জাতিক মঞ্চে হওয়া ঘটনাচক্রের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।      

এদিকে, ফের দাম বাড়ল পেট্রল ও ডিজেলের। গোটা বিশ্বেই এখন তেলের দাম ঊর্ধ্বমুখী। তার প্রভাব পেড়েছে এদেশের বাজারেও। বৃহস্পতিবার থেকে ২৯ পয়সা দাম বেড়েছে পেট্রলের। ডিজেলের দাম বেড়েছে ১৯ পয়সা। কলকাতায় আজ লিটার প্রতি পেট্রলের দাম বেড়ে হয়েছে ৭৫.৪৩ টাকা ও ডিজেলের দাম হয়েছে ৬৮.৪২ টাকা। তেলের দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়তে পারে বাণিজ্যক্ষেত্রেও। কারণ, অপরিশোধিত তেলের দাম যদি ১ ডলার বাড়ে, তাহলে আমদানি খরচ বাড়ে ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা। এর ফলে বাণিজ্যে সমস্যা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। ফলে আগামীদিনে পরিস্থিতি কোনদিকে গড়াবে, তা নিয়ে চিন্তায় অর্থনীতিবিদরা।

[আরও পড়ুন: সৌদি শোধনাগারে হামলার জের, মধ্যপ্রাচ্যে বাড়ছে যুদ্ধের আশঙ্কা]

                          

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement