Advertisement
Advertisement

মহারাষ্ট্র সরকারকে ৫০০ কোটির ‘ঋণ’ দিল শিরডি সাইবাবা মন্দির

এই ঋণের জন্য কোনও সুদও দিতে হবে না মহারাষ্ট্র সরকারকে।

Shirdi Temple help Maharashtra govt.
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:December 2, 2018 7:27 pm
  • Updated:December 2, 2018 7:27 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের বড় বড় মন্দির-মসজিদগুলির সম্পত্তির পরিমাণ শুনলে চোখ কপালে ওঠে অনেকেরই। সমাজসেবীদের একাংশের দাবি, এই সম্পত্তি মন্দিরের ট্রাস্টের জিম্মায় না রেখে তা সমাজের সার্বিক উন্নয়নের কাজে লাগানো উচিত। এ নিয়ে আদালতে জনস্বার্থ মামলাও হয়েছে। তবে আইনি চাপে প়ড়ে নয়, এবার স্বেচ্ছায় সরকারের সহযোগিতায় এগিয়ে এল মহারাষ্ট্রের শিরডি সাইবাবা মন্দির। শ্রী শিরডি সাইবাবা সংস্থান ট্রাস্টের তরফে জানানো হয়েছে, নীলওয়ান্দে বাঁধ তৈরির কাজে রাজ্য সরকারকে সাহায্য করার জন্য ৫০০ কোটি টাকা ঋণ হিসেবে দিতে চায় মন্দির কর্তৃপক্ষ। এই ঋণের জন্য কোনও সুদও দিতে হবে না মহারাষ্ট্র সরকারকে।

[অযোধ্যায় মন্দির হবেই, ভুল করে এমনটাই দেখাল ‘Google Map’]

মহারাষ্ট্রের প্রভারা নদীর উপর এই নীলওয়ান্দে বাঁধটি তৈরি করা হচ্ছে। এর ফলে আশেপাশের পাঁচটি জেলার (সঙ্গমনের, আকোলে, রহাতা, রাহুরি এবং কোপারগাঁও) ১৮২টি গ্রামের মানুষ উপকৃত হবেন। সরকারের সেচ দপ্তরের এক আধিকারিক জানাচ্ছেন, বাঁধটি আংশিকভাবে প্রস্তুত। জল সঞ্চয় করা শুরুও করেছে। তবে, বাঁধটির দুই দিকে আরও কয়েকটি ক্যানাল তৈরি করতে হবে মূলত সেচ এবং পানীয় জলের প্রয়োজনে। এই মুহূর্তে এই প্রকল্পের জন্য সরকারের অর্থ প্রয়োজন। এর আগে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রধানমন্ত্রী কৃষি সঞ্জীবনী যোজনার অধীনে ২ হাজার ২৩২ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্য পেয়েছিল প্রকল্পটি। এদিকে মন্দিরের ট্রাস্টি বোর্ডের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, সরকারের সঙ্গে আর্থিক সাহায্যের ব্যাপারে একটি মউ সাক্ষরিত হয়েছে। শিরডি সাইবাবা সংস্থান সরকারকে নিঃশর্তে ৫০০ কোটি টাকা দিচ্ছে, এবং এর জন্য কোনও সুদও চাইছে না। সংস্থাটি চায় এই এলাকার মানুষ ভাল সেচ ব্যবস্থার সুবিধা পাক।

Advertisement

[মহিলাদের প্রবেশের জন্য নয়া উদ্যোগ সবরীমালায়, তৈরি হবে মানবপ্রাচীর]

ট্রাস্টি বোর্ডের এক আধিকারিকই জানিয়েছেন, শিরডি সাইবাবা মন্দির এর আগেও একাধিক সমাজসেবা মূলক কাজে আর্থিক সাহায্য করেছে। কিন্তু এভাবে এত বড় অঙ্কের অর্থ সাহায্যের বিষয়টি এই প্রথম । উল্লেখ্য, এর আগে মহারাষ্ট্র বিমানবন্দর উন্নয়ন সংস্থাকে ৫০ কোটি টাকা অর্থ সাহায্য করেছিল শিরডি সাইবাবা ট্রাস্ট। এছাড়াও ছোটখাটো কাজে অনুদানের প্রচুর রেকর্ড রয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষের।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ