৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নুন-ভাতের পর এবার পড়ুয়াদের পাতে জুটল নুন-রুটি৷ সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিও ঘিরে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ যোগীর রাজ্যের মিড-ডে মিলের কঙ্কালসার পরিস্থিতি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে বিজেপি৷ ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলেই দাবি জেলা প্রশাসনের৷

[আরও পড়ুন: রেলের মানবিক উদ্যোগ, ভবঘুরেদের খাবার দিতে এবার স্টেশনে ফ্রিজ]

দিনকয়েক আগে মিড-ডে মিল ইস্যুতে শিরোনামে চলে আসে হুগলির চুঁচুড়া বালিকা বাণীমন্দির৷ সেখানে মিড-ডে মিলে পড়ুয়াদের পাতে জুটেছিল নুন-ভাত৷ এই ঘটনায় লাগে রাজনীতির রং৷ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়ায় বঙ্গ বিজেপি৷ নুন-ভাতের পুষ্টিগুণ নিয়েও প্রশ্ন তোলে গেরুয়া শিবির৷ মিড-ডে মিলেও তৃণমূলের তরফে কাটমানির জেরে শিশুদের নুন-ভাত খেতে হচ্ছে বলে তোপ দাগে তারা৷ কিন্তু কটাক্ষের মাঝেই এবার মুখ পুড়ল বিজেপির৷ প্রায় একই ঘটনার সাক্ষী বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশ৷ যোগীর রাজ্যের একটি স্কুলে পড়ুয়াদের পাতে জুটল নুন-রুটি৷ সম্প্রতি মির্জাপুরের সরকারি একটি স্কুলের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়া ছড়িয়ে পড়ে৷ ওই ভিডিওয় দেখা গিয়েছে, স্কুলে একই সারিতে পাত পেড়ে বসে রয়েছে খুদে পড়ুয়ারা৷ তাদের প্রত্যেকের থালাতে দেওয়া হয়েছে নুন এবং হাতে রুটি৷ ডিম, ডাল, সবজি কিছুই জোটেনি তাদের৷ তাই খিদের জ্বালায় বাধ্য হয়ে নুন-রুটি একটু একটু করে খাচ্ছে ছাত্রছাত্রীরা৷

[আরও পড়ুন: রূপকুণ্ডের জলে রহস্যময় হাড় কার? ফাঁস করলেন বিজ্ঞানীরা]

এ প্রসঙ্গে এক অভিভাবক বলেন, ‘‘শুধু নুন-রুটিই নয়৷ মাঝে মাঝে পড়ুয়াদের নুন-ভাতও খেতে দেওয়া হয়৷ বিশেষ কিছু দিনে স্কুলে দুধ আনা হয়৷ তবে তা সব ছাত্রছাত্রীদের হাতে পৌঁছয় না৷ কলাও দেওয়া হয় না তাদের৷’’ উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুরের এই ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন। মির্জাপুরের জেলাশাসক অনুরাগ প্যাটেল এই ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করে বলেন, ‘‘শিক্ষক ও সুপারভাইজরি স্টাফদের গাফিলতিতেই এই ঘটনা ঘটেছে।’’ ঘটনাস্থল উত্তরপ্রদেশ হওয়ায় এখনও পর্যন্ত বিজেপির তরফে এ বিষয়ে একটি শব্দও খরচ করা হয়নি৷ যদিও বিরোধীরা এই ইস্যুতে ইতিমধ্যে সুর চড়াতে শুরু করেছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং