১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সুপ্রিম’ রায়ে স্বস্তিতে অর্ণব, স্বাধিকার ভঙ্গ মামলায় গ্রেপ্তার করতে পারবে না মহারাষ্ট্র সরকার

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 6, 2020 7:52 pm|    Updated: November 6, 2020 9:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আজও জামিন পেলেন না রিপাবলিক টিভির এডিটর-ইন-চিফ অর্ণব গোস্বামী। তবে একইদিনে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে কিছুটা স্বস্তি পেলেন বৈদ্যুতিন মাধ্যমের এই সাংবাদিক। তাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের নোটিস দিয়েছিল মহারাষ্ট্র বিধানসভা। সেই মামলায় গ্রেপ্তারি থেকে অর্ণবকে রক্ষাকবচ দিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। পালটা এই মামলায় বিধানসভার সচিবকে শো-কজ নোটিস দিল শীর্ষ আদালত।

২০১৮ সালে আত্মহত্যা প্ররোচনা দেওয়ার মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছনে অর্ণব গোস্বামী। সেই মামলা এদিনও অম্তর্বর্তী জামিন পেলেন না তিনি। বম্বে হাই কোর্টের বিচারপতি এস এস শিন্দে এবং বিচারপতি এম এস কার্নিকেরর বেঞ্চ জানান, শনিবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে। কারণ এদিন দু’পক্ষের সওয়াল শোনা সম্ভব হয়নি। এদিন অর্ণবের তরফে সওয়াল করেন হরিশ সালভে এবং অবধ পন্ডা। তাঁদের যুক্তি, আত্মঘাতী দুজনের সঙ্গে অর্ণবের স্রেফ আর্থিক সম্পর্ক ছিল। তাই তাঁর পক্ষে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া সম্ভব নয়।

[আরও পড়ুন : কেন্দ্রের পথেই হাঁটল দিল্লি সরকার! উমর খালিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের অনুমতি কেজরিওয়ালের]

অন্যদিকে সু্প্রিম কোর্টের রায়ে স্বস্তিতে অর্ণব। মহারাষ্ট্রের স্বাধিকার ভঙ্গ মামলায় অর্ণবকে গ্রেপ্তার করতে পারবে না। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্য়ু মামলা নিয়ে সংবাদ পরিবেশন ঘিরেই অর্ণবকে নোটিস দিয়েছিল মহারাষ্ট্র বিধানসভা। অভিযোগ ছিল, মহারাষ্ট্রের মুখ্য়মন্ত্রী উদ্ধব ঠ‍াকরে ও এনসিপি সভাপতি শরদ পাওয়ার সম্পর্কে ‘অবমাননাকর’ মন্তব্য করেছেন তিনি। পালটা আদালতে গিয়েছিলেন অর্ণব। সেখানেই স্বস্তি পেলেন তিনি।

অর্ণবকে (Arnab Goswami) আলিবাগের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে পেশ করা হয় এবং তাঁর মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হয়। আদালতে পুলিশ জানায়, ২০১৮ সালের অনভয় মালিক আত্মহত্যা মামলাটি তাঁরা পুনরায় চালু করছেন। এবং এই মামলার তদন্তে বড়সড় অগ্রগতি হয়েছে। অর্ণব প্রভাবশালী ব্যক্তি, তদন্ত প্রভাবিত করতে পারেন, সেই যুক্তিতে ১৪ দিন তাঁকে নিজেদের হেফাজতে চেয়েছিল মুম্বই পুলিশ। শেষপর্যন্ত অবশ্য আদালত পুলিশের সেই দাবি মানেনি। আবার সাংবাদিকের জামিনের আবেদনও খারিজ করে দিয়েছে। আপাতত অর্ণবকে ১৪ দিন বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

[আরও পড়ুন : কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় খোলার নতুন গাইডলাইন দিল UGC, খুলতে পারে হস্টেলও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement