BREAKING NEWS

২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মোদি সরকারে আইনের গেঁরো! নতুন বছরে কমতে পারে ‘টেক হোম’ স্যালারির অঙ্ক

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 9, 2020 1:33 pm|    Updated: December 9, 2020 2:23 pm

Bengali news: take-home salary may reduce from April next year | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নতুন বছর শুরুর আগেই খারাপ খবর! কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন আইনের গেঁরোয় বেসরকারি কর্মীদের হাতে পাওয়া বেতন বা টেক হোম স্যালারি (Take Home Salary) কমতে পারে। এমনই আশঙ্কা করছেন ওয়াকিবহাল মহল। কী এমন আইন এনেছে মোদি সরকার?

চলতি বছর সংসদে নয়া বেতন পরিকাঠামো আইন বা কোড অন ওয়েজেস (Code on Wages) পাশ করিয়েছে মোদি সরকার। যা নয়া আর্থিক বছর অর্থাৎ ১ এপ্রিল, ২০২১ সাল থেকে কার্যকর হতে চলেছে। নয়া আইনে বলা হয়েছে, মোট বেতনের ৫০ শতাংশের বেশি হবে না কোনও ভাতা বা অ্যালাওয়েন্স (Allowance)। যার অর্থ, মোট বেতনের ৫০ শতাংশ হতে হবে বেসিক পে (Basic Pay) বা মূল বেতন। পাল্লা দিয়ে বাড়বে পিএফ (PF) বা গ্র্যাচুইটি খাতে জমা করা অর্থের পরিমাণ।

[আরও পড়ুন : আর্থিক প্যাকেজ দিতে গিয়ে দ্বিগুণেরও বেশি বাজেট ঘাটতি! চিন্তিত নন নির্মলা]

উল্লেখ্য, ভারতের বেশিরভাগ বেসরকারি সংস্থায় মোট বেতনের (Gross Salary) অধিকাংশটাই কর্মীদের নানা অ্যালাওয়েন্স বা ভাতা খাতে দেওয়া হয়। অনেকটাই কম থাকে বেসিক স্যালারি। সুতরাং সেই অনুপাতে জমা পড়ে প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা। কিন্তু এবার এই রীতি বদলাতে হবে।

ওয়াকিবহাল মহল সূত্রে খবর, বেসরকারি সংস্থা বেতন কাঠামোর খোলনচলে বদল করতে হবে। মহামারীর সময় কর্মীদের বেতন বাড়ানোর পথে হাঁটবে না অধিকাংশ সংস্থাই। ফলে বর্তমান মোট বেতনের অঙ্ক অপরিবর্তিত রেখে নতুন নিয়ম কার্যকর করবে সংস্থাগুলি। আর তাতে কোপ পড়বে টেক হোম স্যালারির অঙ্কে। কারণ, মূল বেতন বাড়ালেই পিএফ ও গ্র্যাচুইটি খাতে বাড়বে জমার পরিমাণ। সেটা কাটা হবে কর্মীর টেক হোম স্যালারি থেকেই। বলা হচ্ছে, সেক্ষেত্রে সংস্থাগুলি কস্ট টু কোম্পানির দিকে বেশি ঝুঁকবে। তবে ওয়াকিবহাল মহলের কথায়, নয়া আইন কার্যকর হলে অবসরের পরবর্তী জীবন অনেক বেশি সুনিশ্চিত হবে বেসরকারি কর্মীদের।

[আরও পড়ুন : কোথায় অর্থ সংকট? মহামারীর বছরেও আমেরিকা থেকে রেকর্ড মূল্যের অস্ত্র কিনেছে ভারত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে