১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তেলেঙ্গানায় ৭ মে পর্যন্ত বাড়ল লকডাউনের মেয়াদ, মন্ত্রিগোষ্ঠীর বৈঠকে সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 20, 2020 1:13 pm|    Updated: April 20, 2020 1:14 pm

Telengana CM Increase Lockdown in his state, stop food delivery app

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৩ মে পর্যন্ত দেশে লকডাউনের আয়ুকাল বৃদ্ধির ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তবে সার্বিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে তেলেঙ্গানা সরকার প্রথম নিজের রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ ফের বাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন। ৩ মে থেকে বাড়িয়ে তা ৭ মে পর্যন্ত করার কথা ঘোষণা করলেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও।

সার্বিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে লকডাউনের মাঝেই শর্তসাপেক্ষে রাজ্যগুলিতে কয়েকটি পরিষেবায় ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু বারবার প্রশ্ন জাগে এই লকডাউনের মেয়াদ কতদিনের? আদপেও কি তা ৩ মে শেষ হবে? এই নির্দিষ্ট দিনের মধ্যেই কি সংক্রমণ ছড়ানোর ঝুঁকি এড়ানো যাবে? সেই আশঙ্কা থেকেই তেলেঙ্গানায় লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৭ মে পর্যন্ত করে দিল চন্দ্রশেখর রাও সরকার। রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর তেলেঙ্গানা মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, “৭ মে পর্যন্ত লকডাউন বৃদ্ধি করা হল। তবে ৫ মে পর্যন্ত পরিস্থিতির দিকে কড়া নজর দেওয়া হবে।” তেলেঙ্গানা মুখ্যমন্ত্রীর পথ অনুসরণ করে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পাও যে একই পথে হাঁটবেন সেই ইঙ্গিতও পাওয়া গেছে। রবিবার কর্নাটকে একটি ভিডিও কনফারেন্সের বৈঠকে ইয়েদুরাপ্পা তাঁর রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধিতেই ইঙ্গিত দেন। তেব এই দুই রাজ্যের বাকি রাজ্যেরব মুখ্যমন্ত্রীরাও আলাদা আলাদাভাবে নিজেদের রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করবেন কিনা সেই বিষয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। কারঁ লকডাউনের দ্বিতীয় পর্ব ঘোষনার আগেই ওড়িশা, বিহারে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করে দেওয়া হয়েছিল।

[আরও পড়ুন:জল নেওয়ার আগে ধুতে হবে হাত, সংক্রমণ রুখতে টিউবওয়েলের কাছে রাখা হল সাবান-পোস্টার]

অনেকের মতে আগের বারের মত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা ব্যক্তিগত ভাবে নিজেদের রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ফের লকডাউনের আয়ুকাল বৃদ্ধির আরজি জানাতে পারেন।এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, “লকডাউনের মেয়াদে সমস্ত ফুড ডেলিভারি অ্যাপের পরিষেবাও এবার পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হল। তেলেঙ্গানায় এখনও পর্যন্ত ৮৫৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গিয়েছেন একুশ জন। তবে সংক্রমণ রোধের বিষয়ে অনেক রাজ্যের তুলনায় এগিয়ে তেলেঙ্গানা। এই রাজ্যের চারটি জেলায় সংক্রমণ নতুন করে ছড়ায়নি। কিন্তু তা সত্ত্বেও এখনই সন্তুষ্ট হওয়ার কোনও কারণ নেই। বরং এটা আরও সতর্ক হওয়ার সময়। তেলেঙ্গানায় ৮৭ লক্ষ রেশন কার্ড হোল্ডারকে দ্বিতীয় মাসের জন্যও ১২ কেজি চাল, ১৫০০ টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন চন্দ্রশেখর। তা ছাড়া ভিন রাজ্যের যে সব শ্রমিক যারা তেলেঙ্গানায় পরিবার নিয়ে রয়েছেন তাঁদেরও ১২ কেজি চাল, ১৫০০ টাকা করে দেবে সরকার। অন্যদিকে কর্নাটক সরকার জানিয়েছে যে, আজ সোমবার থেকে কিছু পরিষেবায় ছাড় দেওয়ার ব্যাপারে কেন্দ্র যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা রাজ্যে শুরু করা হবে না। পুরো লকডাউন চলবে কাল পর্যন্ত। বিশেষ কিছু পরিষেবায় ছাড় দেওয়া হবে পরশু থেকে।

[আরও পড়ুন:লকডাউনে হোটেল -পরিবহণে ছাড় কেরলের, ক্ষোভপ্রকাশ করে চিঠি দিল কেন্দ্র]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে