১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাশ্মীরে সন্ত্রাস দমনে বড় সাফল্য, পুলিশের জালে পাঁচ IS সদস্য, খতম এক জেহাদিও

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 22, 2020 5:59 pm|    Updated: August 22, 2020 6:05 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্ত্রাস দমনে বড়সড় সাফল্য পেল কাশ্মীরের (Kashmir) যৌথবাহিনী। একদিকে যৌথবাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে নিকেশ হয়েছে এক জেহাদি (Terroris)। জালে আরও দুই জঙ্গী। অন্যদিকে ভূস্বর্গ থেকে আরও পাঁচ ISIS-এর কাশ্মীর শাখার (ISJK) সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সবমিলিয়ে শনিবার দিনভর উত্তপ্ত ছিল কাশ্মীর।

এদিন বেলা পৌনে ১২টা নাগাদ কাশ্মীরের বারামুল্লা ক্রেরি গ্রামের কাছে তিনজন জঙ্গি লুকিয়ে আছে বলে খবর পায় যৌথবাহিনী। এরপরই গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে শুরু হয় তল্লাশি অভিযান। পুলিশ ও আধাসেনার উপস্থিতি টের পেয়েই এলোপাথারি গুলি ছুঁড়তে শুরু করে জেহাদিরা। পালটা জবাব দেয় যৌথবাহিনীর সদস্যরাও। শুরু হয় এনকাউন্টার। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী জওয়ানদের গুলিতে এক জঙ্গি খতম হয়েছে। বাকি দুজনকে ঘিরে ফেলা হয়েছে। তবে তারা এখনও আত্মসমপর্ণ করেনি।

[আরও পড়ুন : দিল্লির পর পাঞ্জাব সীমান্তেও গুলির লড়াই, খতম ৫ পাকিস্তানি জঙ্গি]

ISJK

এদিকে এদিনই বান্দিপোরা এলাকার আইসিসের জঙ্গি মডিউলের (ISJK) পর্দা ফাঁস করল কাশ্মীর পুলিশ। পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে চারজন বান্দিপোরার ও একজন শ্রীনগরের বাসিন্দা বলে খবর। পাঁচজনের কাছ থেকে প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র ও আইসিসের জম্মু-কাশ্মীর শাখার পতাকা মিলেছে। বান্দিপোরা পুলিশ সূত্রে খবর, পাঁচজনই আইসিসে (ISIS) কাশ্মীর শাখার সদস্য। সেনা ক্যাম্পে হামলার ছক কষছিল তারা।  পুলিশ সূত্রে খবর, কাশ্মীরের যুব সম্প্রদায়ের মগজধোলাই করে দলে টানার কাজও করত এরা। পাশাপাশি, আইসিসের পতাকা তৈরি করে কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় পৌঁছে দিত তারা। পাঁচজনকে জেরা করে  ISJK সম্পর্কে আরও তথ্য মিলবে বলে মনে করছে কাশ্মীর পুলিশ। 

[আরও পড়ুন : দিল্লিতে তুমুল গুলির লড়াই, আইইডি বিস্ফোরক-সহ গ্রেপ্তার ISIS জঙ্গি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement