৩০ চৈত্র  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বাবা যেন তাড়াতাড়ি ফেরে’, নিখোঁজ জওয়ানের মেয়ের ভিডিও দেখে চোখে জল দেশবাসীর

Published by: Arupkanti Bera |    Posted: April 6, 2021 5:07 pm|    Updated: April 6, 2021 5:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কান্না ভেজা গলায় বছর পাঁচেকের ছোট্ট এক মেয়ের অবেদন, “আমার বাবা যেন তাড়াতাড়ি ফিরে আসে।” সোশ্যাল মিডিয়ার (Social Media) দৌলতে এখন গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে সেই ভিডিও। ভিডিওটি আর কারও নয়, ছত্তিশগড়ের (Chhattisgarh) বিজাপুরে মাওবাদীদের (Maoist) সঙ্গে সংঘর্ষের পর থেকে নিখোঁজ কোবরা কমান্ডো বাহিনীর কনস্টেবল রাকেশ্বর সিং মিনহাসের মেয়ের। যেখানে সে পরিবারের অন্যদের সঙ্গে আবেদন করছে তার বাবা যেন দ্রুত ফিরে আসেন।

শনিবার বিজাপুর এবং সুকমার (Sukma) মাঝে জঙ্গলে মাওবাদীদের সঙ্গে সংঘর্ষে ২২ জন জওয়ানের মৃত্যু হয়। পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছে ২৫-৩০ জন মাওবাদী মারা গিয়েছে। তবে সংঘর্ষের পর থেকে রাকেশ্বর নামে ওই জওয়ানের কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। তার পর সোমবার স্থানীয় এক সাংবাদিকের কাছ থেকে জানা যায়, রাকেশ্বর নাকি মাওবাদীদের হেফাজতে রয়েছেন। মাওবাদী শীর্ষ নেত্রী মাধবী হিদমা নাকি নিজে ফোন করেছিলেন ওই সাংবাদিককে। তবে কোনও মুক্তিপণের দাবি আসেনি বলেও জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘নারায়ণী ব্যাটেলিয়ান নিয়ে মোদি মিথ্যা বলছেন’, আরটিআই তথ্য তুলে তীব্র আক্রমণ মমতার]

টিভি থেকে রাকেশ্বরের নিখোঁজ হওয়ার খবর পান বলে জানিয়েছেন তাঁর স্ত্রী মীনা। রাকেশ্বরের নিখোঁজ হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই কার্যত ভেঙে পড়েছে তার পরিবার। এমনকী জম্মু কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিংকেও মীনা আবেদন করেছেন, দ্রুত তাঁর স্বামীকে ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে। এর মাঝেই রাকেশের ছোট মেয়ের ভিডিও ভাইরাল হল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

যদিও প্রায় ৩ দিন কেটে গেলেও রাকেশ্বরের কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি কোথায় রয়েছেন সে সম্পর্কেও স্পষ্ট কোনও ধারণা নেই সিআরপিএফের কাছে। রাকেশকে খুঁজে বার করতে তল্লাশি জারি রয়েছে। ছত্তিশগড়ের এক উচ্চপদস্থ পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, রাকেশ্বর হয়তো মাওবাদীদের হেফাজতেই রয়েছে। তাঁকে খুঁজে বার করার চেষ্টা চলছে।

[আরও পড়ুন: ধ্বংসই কি ভবিষ্যৎ? আইএনএস বিরাট নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের মন্তব্যে ফের জল্পনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement