BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বচসার জের, দলিত ব্যক্তির আঙুল চিবিয়ে খেল মুসলিম যুবক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 2, 2019 5:30 pm|    Updated: October 2, 2019 5:43 pm

The young man bites the man's finger, 'swallows it' in the fury

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউডের একটি সিনেমায় কেউ আঙুল তুলে কথা বললেই মাথা গরম করতে দেখা গিয়েছিল নায়ককে। যতক্ষণ পর্যন্ত না ওই আঙুলটিকে তিনি ভাঙতে পারতেন ততক্ষণ পর্যন্ত শান্তি পেতেন না। বাস্তবেও অনেক ছোটখাট বচসা শুধুমাত্র আঙুল তোলার জেরে রক্তক্ষয়ী মারামারিতে পরিণত হয়। কিন্তু, আঙুল তুলে কথা বলার জেরে সেটা চিবিয়ে খেয়ে নেওয়ার ঘটনা মনে হয় কেউ কোনওদিন শোনেননি। যদিও না শোনা সেই ঘটনাই ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ভোপাল জেলার শেওপুর এলাকায়। আক্রান্ত ওই ব্যক্তির নাম শ্যাম মাহোর। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান সম্প্রচার না করার অভিযোগ! বরখাস্ত দূরদর্শন কর্মী]

জানা গিয়েছে, গত সোমবার রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ ছেলে মহাবীরের সঙ্গে বাইকে চেপে বাড়ি ফিরছিলেন শ্যাম। ঘিঞ্জি রাস্তায় তাঁদের বাইকের সঙ্গে ২৪ বছর বয়সী আসগর খানের স্কুটারের ধাক্কা লাগে। গতি কম থাকায় কারও কোনও আঘাত লাগেনি। তা সত্ত্বেও রাস্তার মাঝে গাড়ি দাঁড় করিয়ে ঝগড়া শুরু করেন তাঁরা। সেসময় আচমকা শ্যামের ছেলে মহাবীরকে মারধর করতে থাকে আসগর। উলটো-পালটা গালাগালিও দিতে থাকে। বিষয়টি দেখে মাথা গরম হয়ে যায় শ্যামের। আসগরের দিকে আঙুল তুলে তিনি ভদ্রভাবে কথা বলতে বলেন। আর এর জেরে ঘটে যায় বিপত্তি। আচমকা শ্যামের আঙুল কামড়ে ছিঁড়ে নেয় আসগর। তারপর সেটি চিবিয়ে খেয়েও নেয়। শ্যাম যন্ত্রণায় ছটফট করলেও একফোঁটা মায়া হয়নি তার।

শ্যাম মাহোরের অভিযোগ, ‘সামান্য কারণে অযথা গালাগালি করছিল আসগর খান নামে ওই যুবক। আমি তাকে ভদ্রভাবে কথা বলতে বলি। কিন্তু, তার বদলে আমার আঙুল কামড়ে ছিঁড়ে নেয় ও। তারপর সেটি চিবিয়ে গিলে নেয়। আচমকা তার এই আচরণ দেখে চমকে উঠি আমি। তাই প্রতিরোধ করতে পারেনি। আঙুলটি পেলে অপারেশন করে আবার লাগাতে পারতাম।’

[আরও পড়ুন:৫ বার মনোনীত হয়েও নোবেল পুরস্কার পাননি গান্ধীজি, কেন?]

এই ঘটনার তদন্তকারী অধিকারিক রীনা রাজাওয়াত জানান, শ্যাম মাহোরের অভিযোগের ভিত্তিতে আসগরের নামে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৩, ২৯৪, ৫০৬ ও এসসি-এসটি আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত শুরু হলেও এখনও অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে