২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের রাজ্যের কাজে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের অভিযোগে সরব তৃণমূল কংগ্রেস। খোদ তৃণমূলের সংসদীয় দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন। রবিবার, মোদি সরকার ২.০-র প্রথম লোকসভা অধিবেশনের আগে সর্বদল বৈঠক ছিল। এই বৈঠকেই সাম্প্রতিককালে রাজ্যের বিভিন্ন ইস্যুতে যেভাবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক হস্তক্ষেপ করছে তা নিয়ে সরব হন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন: তৃণমূলকে চাপে ফেলতে তৎপর বাংলার বিজেপি সাংসদরা, নয়া কৌশল গেরুয়া শিবিরের]

সন্দেশখালির ঘটনার পর থেকেই রাজ্যের বিষয়ে তাৎপর্যপূর্ণভাবে সক্রিয় হয়ে ওঠে কেন্দ্র। প্রথমে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে রাজ্যকে অ্যাডভাইজরি পাঠানো হয়। এরপরই সন্দেশখালি তথা রাজ্যের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয় রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীকে। দিল্লিতে গিয়ে রাজ্যের সার্বিক রিপোর্ট দেওয়ার পাশাপাশি, একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রয়োজনে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার কথা ভাবা হবে বলেও ইঙ্গিত দেন রাজ্যপাল। রাজ্যে ফিরে সর্বদল বৈঠকও ডাকেন তিনি। এরপর এনআরএস ইস্যুতেও নজিরবিহীনভাবে সক্রিয়তা দেখা যায় তাঁর। একাধিকবার এ প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। এনআরএস ইস্যুতেও কেন্দ্রের তরফে অ্যাডভাইজারি দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দিল্লিতে নোয়াপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক সুনীল সিং, বিজেপিতে যোগদানের সম্ভাবনা]

এরপর রাজ্যে ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক হিংসা নিয়েও কড়া চিঠি পাঠানো হয় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে। রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা বৃদ্ধির কারণ সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যও চান তিনি। যা নিয়ে রীতিমতো বিরক্ত তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন সংসদে সর্বদল বৈঠকে এই ইস্যুতে সরব হন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করেন, রাজ্যের সঙ্গে যা হচ্ছে তা ঠিক হচ্ছে না। রাজ্যের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো মানা হচ্ছে না। বৈঠক শেষে নিজেই একথা জানিয়েছেন সুদীপ। যদিও, এই নালিশের পরেও কেন্দ্রের আচরণে কোনও পরিবর্তন হবে বলে আশা করছে না তৃণমূল শিবিরও। এদিন, সর্বদল বৈঠকে কংগ্রেসের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরিও। তাঁকে এবার লোকসভায় কংগ্রেসের হুইপ বা ডেপুটি হুইপ করা হতে পারে বলেও জল্পনা ছড়িয়েছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং