BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘মন্দিরে চুমুর দৃশ্যে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত! তাহলে খাজুরাহো কী?’ বিজেপিকে খোঁচা মহুয়ার

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 26, 2020 12:17 pm|    Updated: November 26, 2020 12:17 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেটফ্লিক্স ইস্যুতে মধ্যপ্রদেশের স্থাপত্যের উদাহরণ টেনে বিজেপিকে বিঁধলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র (TMC MP MOhua Moitra)। বৃহস্পতিবার সকালে খাজুরাহোর মন্দিরের স্থাপত্যের ছবি পোস্ট করেন তিনি। খাজুরাহোর মন্দিরের দেওয়ালের ওই স্থাপত্যে যৌনমিলন দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সেই ছবিকে হাতিয়ার করে মধ্যপ্রদেশের বিজেপি সরকারকে তৃণমূল সাংসদের খোঁচা, “বিজেপির শাসনকালে আর কত কী দেখব!”

নেটফ্লিক্সের (Netflix) ওয়েবসিরিজ ‘এ সুইটেবল বয়‘-এর এক চুম্বন দৃশ্য নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। এমনকী, ওই ওটিটি প্ল্যাটফর্মের দুই আধিকারকিকের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। এই ঘটনায় শিল্পের স্বাধীনতা হরণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এবার এই ই্স্যুতে সরব বলেন তৃণমূল সাংসদও।

[আরও পড়ুন : অসমের ডিব্রুগড়ে ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা, মৃত কমপক্ষে ৬]

এদিন মহুয়া মৈত্র টুইটারে লেখেন, “মধ্যপ্রদেশের পুলিশ নেটফ্লিক্সের ওয়েবসিরিজ খতিয়ে দেখবেন, হিন্দু ধর্মকে আঘাত করার মতো কোনও বিষয় রয়েছে কি না। তাহলে খাজুরাহোর মন্দিরের গায়ে এগুলো কী?” উল্লেখ্য, মধ্যপ্রদেশের খাজুরাহোর মন্দিরের গায়ের স্থাপত্যে যৌন মিলন সংক্রান্ত বহু দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। তাতে যদি হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত না লাগে, তাহলে মন্দিরের মধ্য চুম্বনে কীভাবে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লাগে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মহুয়া। তাঁর খোঁচা, বিজেপির শাসনকালে আর কী কী দেখতে হবে?

[আরও পড়ুন : বন্দিবস্থায় কীভাবে মোবাইল পেলেন লালু? অডিও ক্লিপ নিয়ে তদন্তের নির্দেশ ঝাড়খণ্ড প্রশাসনের]

উল্লেখ্য, মীরা নায়ার পরিচালিত ‘এ সুইটেবল বয়’ (A Suitable Boy) ওয়েব সিরিজটি দেখা যাচ্ছে নেটফ্লিক্সে। সেখানেই একটি দৃশ্যে দেখানো হয়েছে, মন্দিরের মধ্যে গভীর চুম্বনে লিপ্ত হিন্দু তরুণী ও এক মুসলিম যুবক। তাতেই সরগরম নেটদুনিয়া। এই ওয়েব সিরিজটি লাভ জেহাদকে সমর্থন করছে বলে অভিযোগ ওঠে। নেটিজেনদের তীব্র রোষের মুখে পড়েছে নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ। এমনকী, এই ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বয়কটেরও (Boycott) ডাক দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে হইচই হতেই মধ্যপ্রদেশের রেওয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বিজেপির যুব মোর্চার নেতা গৌরব তিওয়ারি। দৃশ্যটি সরিয়ে দিয়ে নেটফ্লিক্সকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement