BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সংসদে ফের কংগ্রেস-তৃণমূল সুসম্পর্ক! খাড়গের ডাকা বৈঠকে সুদীপ, সৌজন্য দেখালেন অধীরও

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 7, 2022 4:51 pm|    Updated: December 7, 2022 4:51 pm

TMC MP Sudip Banerjeee attends meeting called vy Congress leader Mallikarjun Kharge in Parliament | Sangbad Pratidin

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: জাতীয় রাজনীতিতে কংগ্রেস (Congress) এবং তৃণমূলের সমীকরণে ফের বদলের ইঙ্গিত! সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনই কংগ্রেসের রাজ্যসভার দলনেতা তথা দলের সর্বভারতীয় সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের ডাকা বৈঠকে উপস্থিত থাকলেন তৃণমূলের প্রতিনিধি। কংগ্রেসের তরফ থেকেও পালটা সৌজন্য দেখানো হল। যে অধীর চৌধুরী (Adhir Chowdhury) রাজ্য রাজনীতিতে তৃণমূলের সবচেয়ে প্রবল বিরোধী হিসাবে পরিচিত, তিনিও এদিন লোকসভায় তৃণমূলের হয়ে সওয়াল করলেন।

সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরুর আগে আজ রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা সব বিরোধী দলের নেতাদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছিলেন। তাতে ডিএমকে (DMK), এনসিপি (NCP), শিব সেনা উদ্ধব ঠাকরের মতো বেশ কয়েকটি দল প্রত্যাশিতভাবেই উপস্থিত ছিল। তবে এদিনের এই বৈঠকে দু’টি দলের উপস্থিতি ছিল বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এক, তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। দুই, আম আদমি পার্টি। তৃণমূলের তরফে দলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং আপের তরফে সঞ্জয় সিং বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। খাড়গের ডাকা বৈঠকে এই দুই দলের উপস্থিতি বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন: ফের স্বস্তিতে অনুব্রত, আপাতত তৃণমূল নেতাকে দিল্লিতে নিয়ে যেতে পারবে না ইডি]

আসলে সংসদের গত দু’টি অধিবেশনে তৃণমূল খুব সচেতনভাবেই কংগ্রেসের সঙ্গ এড়িয়ে গিয়েছে। ইস্যু এক হলেও বিরোধী শিবিরের দুই অন্যতম শক্তিকে আলাদা আলাদাভাবে আন্দোলন করতে দেখা গিয়েছে। কংগ্রেসের ডাকা বৈঠকগুলিও এড়িয়ে যেত তৃণমূল। কোনও কোনও বৈঠকে তৃণমূল উপস্থিত থাকলেও দ্বিতীয় সারির কোনও সাংসদকে প্রতিনিধি হিসাবে পাঠানো হত। কিন্তু শীতকালীন অধিবেশনের শুরুতেই কংগ্রেসের ডাকা বৈঠকে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো শীর্ষ নেতার উপস্থিতি বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন: দিল্লিতে দেড় দশকের বিজেপি যুগের অবসান, পুরনিগমে ক্ষমতা দখল করল AAP]

এদিন আরও একটি তাৎপর্যপূর্ণ ঘটনা সংসদে ঘটেছে। কংগ্রেসের লোকসভার দলনেতা তথা প্রদেশ কংগ্রেস সভপতি অধীর চৌধুরী লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার কাছে বিভিন্ন সংসদীয় কমিটিতে বিরোধীদের বাদ দেওয়া নিয়ে অভিযোগ করেন। সেই বাদ যাওয়া সাংসদদের তালিকায় ছিলেন তৃণমূলের সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Sudip Bandyopadhyay)। সোনিয়া গান্ধীর উপস্থিতিতে অধীর সুদীপের নাম করে তৃণমূল সাংসদকে ওই পদ ফিরিয়ে দিতে অনুরোধ করেন। অধীর চৌধুরীর মতো প্রবল তৃণমূল বিরোধীর এভাবে সুর নরম করে সংসদে তৃণমূলের হয়ে সওয়াল করাটাও বেশ ইঙ্গিতবাহী। ঘটনাচক্রে এসবই ঠিক সেসময় ঘটছে যখন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) দিল্লিতে উপস্থিত রয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন শুরু হয়ে গিয়েছে, তাহলে কি নিজেদের মধ্যেকার ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে নিতে চাইছে কংগ্রেস এবং তৃণমূল?

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে