BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মমতা-কেজরির ‘বন্ধুত্ব’, দিল্লি বিধানসভা ভোটে আপকে সমর্থন তৃণমূলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 31, 2020 2:38 pm|    Updated: January 31, 2020 2:38 pm

TMC supports AAP for Delhi Assembly Polls, tweets Derek O Brien

ফাইল চিত্র

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রত্যাশামতোই দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে আম আদমি পার্টিকে সমর্থনের কথা ঘোষণা করি দিল এ রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। বৃহস্পতিবার একটি ভিডিও টুইট করেন তৃণমূলের রাজ‌্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন। যেখানে তাঁকে রাজেন্দ্রনগর কেন্দ্রের আম আদমি পার্টির প্রার্থী রাঘব চাড্ডার হয়ে ভোট প্রচার করতে দেখা যায়। সেই ভিডিওতেই তিনি বলেন, “শিক্ষা, স্বাস্থ‌্য, বিদ্যুৎ, জল ও দূষণ সংক্রান্ত যা যা কথা দিয়েছিল, তা পূরণ করেছে আপ সরকার।” সেইসঙ্গে তিনি লেখেন, “রাজেন্দ্রনগরের আপ প্রার্থী রাঘব চাড্ডা, অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং আপের সমস্ত প্রার্থীদের ভোট দিন।”

পশ্চিমবঙ্গ ও দিল্লি – দু’ রাজ্যের মুখ‌্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ‌্যায় ও অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সম্পর্ক বরাবরই বেশ ভাল। বিভিন্ন ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ‌্যায়ের প্রতিবাদ মঞ্চে দেখা গিয়েছে কেজরিওয়ালকে। এবার দিল্লি নির্বাচনের আগে তাই রাজনৈতিক সৌজন‌্য এবং বন্ধুত্বের সমীকরণে মেনেই আপকে সমর্থন করছে তৃণমূল। তবে ডেরেকের এই ভিডিও প্রকাশের ঠিক পরেই তৃণমূলকে আক্রমণ করেন বিজেপির অন‌্যতম প্রবীণ নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তাঁর মন্তব্য, “বাংলায় তৃণমূলের জনসমর্থন রোজ কমে যাচ্ছে। আর ওরা দিল্লিতে আপকে সমর্থন করছে। যেখানে কি না ওদের নিজেদেরই কোনও অস্তিত্ব নেই। এই বিষয়ে যত কম কথা বলা যায়, ততই ভাল। তৃণমূলেরও উচিত, নিজেদের হাসির খোরাক না বানানো।” এদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কেজরিওয়ালকে তাঁর দেখা সবথেকে বড় মিথ‌্যেবাদী আখ‌্যা দেন। বলেন, “৫৬ বছরের জীবনে এত বড় মিথ‌্যেবাদী দেখিনি।” এরপরই তাদের কটাক্ষ করা শুরু করল বিজেপি।

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে শিশু অপহরণকারীর স্ত্রীকে গণপিটুনি, হাসপাতালে মৃত্যু মহিলার]

আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি দিল্লির ৭০ টি বিধানসভা আসনে নির্বাচন। এতদিন আম আদমি পার্টির অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নেতৃত্বে সরকার চলেছে। এবারও কি রাজধানীর মসনদে ফিরবেন কেজরি? এই প্রশ্নের উত্তর মিলবে আগামী ১১ তারিখ। তৈরি হবে নতুন সরকার। গত লোকসভা ভোটে বিজেপির সদর্পে ফিরে আসা আপকে বেশ চিন্তায় ফেলেছে। সম্প্রতি জেএনইউ, জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসি – এমন গুরুত্বপূ্র্ণ বিষয় দিল্লির ভোটে বড়সড় ইস্যু হতে চলেছে। তা সত্ত্বেও গত ৫ বছরের কাজের খতিয়ান তুলে ধরেই জনসমর্থন নিজের দিকে রাখার প্রাণপণ চেষ্টা করছেন মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল

[আরও পড়ুন: সংসদে অর্থনীতি নিয়ে আলোচনায় রাজি মোদি, অধিবেশন শুরুতেই বিক্ষোভ বিরোধীদের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে